ঈদের আগে ঘর সাজাবেন কিভাবে জেনে নিন কিছু টিপস

মুসলমানদের জন্য দুটি ঈদ থাকলেও রোজার ঈদ তথা ঈদুল ফিতরেই আনন্দ হয় বেশি

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ঈদের আর বেশিদিন বাকি নেই। ঈদ এলে ঘর সাজানো জরুরি হয়ে পড়ে। কিন্তু কিভাবে এই সাজানোর কাজটি করবেন তা নিয়ে আপনাকে বেশ চিন্তায় পড়তে হয়। সে সমস্যা সমাধানে আজ রয়েছে ঈদের আগে ঘর সাজাবেন কিভাবে তার কিছু টিপস।

মুসলমানদের একটি বড় আনন্দ উৎসব হলো ঈদুল ফিতর। মুসলমানদের জন্য দুটি ঈদ থাকলেও রোজার ঈদ তথা ঈদুল ফিতরেই আনন্দ হয় বেশি। তাই ঈদ এলে সবাই সাধ্য অনুযায়ী নিজের ও পরিবারের জন্য জামাকাপড় কিনে থাকেন। সেইসঙ্গে বাড়ি ঘরকেও সাজিয়ে তোলেন নতুন সাজে। অনেকেই ঈদ উপলক্ষে নতুন আসবাবপত্রও কিনে থাকেন। তবে না কিনলেও পুরোনো জিনিস দিয়েও ঘর সাজাতে পারেন, নতুন আঙ্গিকে। আজ রয়েছে এবারের ঈদে ঘর সাজানো জন্য কিছু টিপস। জেনে নিন সেগুলো।

# আপনাকে প্রথমেই যে কাজটি করতে হবে সেটি হলো বাসার পর্দা, সোফার কভার, কুশন কভার ভালো করে ধুয়ে আয়রণ করিয়ে নিন। আবার যদি মনে করেন বাসায় ধোয়া ঝামেলা তাহলে লন্ড্রীতেও দিতে পারেন। সেক্ষেত্রে এবং আয়রণ একইসঙ্গে হয়ে যাবে।

# আপনি যদি নতুন পর্দা, কুশন কভার কেনেন সেক্ষেত্রে সুতি কাপড় এবং একটু গাঢ় রঙের প্রাধান্য দিন, নীল বা সবুজ রঙও বেশ ভালো মানাবে। কারণ হলো এবারের ঈদ হচ্ছে আষাঢ় মাসে অর্থাৎ পুরো বর্ষায়।

# ঈদের পূর্বে আপনার রান্নাঘর ভালো করে পরিস্কার করে নিন। বিশেষ করে রান্না ঘরের জানালার রডগুলো গরম পানির সঙ্গে গুড়ো পাউডার দিয়ে পরিষ্কার করুন। ঈদের দিন রান্না করার জন্য বড় হাড়ি পাতিল ধুয়ে ভালো করে গুছিয়ে রাখুন।

# পরিবেশন পাত্র যেমন প্লেট, গ্লাস, চামচ ইত্যাদি শোকেস হতে বের করে গুছিয়ে রাখুন। এতেকরে মেহমান আসলে আপনাকে ঝামেলায় পড়তে হবে না।

# কোনো এক ফাঁকে ঘরের ফ্যানগুলোর ব্লেডগুলো ভালো করে পরিস্কার করে নিন।

# ঘরে কার্পেট থাকলে ভ্যাকুয়াম ক্লিনার দিয়ে পরিস্কার করুন। ভ্যাকুয়াম ক্লিনার না থাকলে ব্রাশ কিংবা ভেজা কাপড় দিয়ে মুছে নিতে পারেন।

# একটি কাপড়ে হালকাভাবে কেরোসিন তেল লাগিয়ে আসবাবপত্রগুলো সুন্দরভাবে মুছে নিন। দেখবেন কেমন চকচকে হয়ে উঠেছে।

# এবার ঘরের আসবাবপত্রগুলো একটু ঘুরিয়ে ফিরিয়ে সেট করে নিন। এতে করে বেশ নতুনত্ত আসবে। পর্দাও একটু বদল করে টাঙ্গাতে পারেন।

# ছোট ছোট ইনডোর গাছ লাগাতে পারেন, ঘরের ভিতর একটা তাজা তাজা ভাব আসবে। ফুলদানিতে ঈদের আগের রাতে তাজা ফুলও রাখতে পারেন। ফুলের গন্ধে ঘরের পরিবেশ আরও মোহনীয় হয়ে উঠবে।

# বর্তমানে শুকনো ফুলের অনেক সুন্দর সুন্দর শো-পিছ পাওয়া যায়, সেসব শো-পিছ হতে ছোট কয়েকটা বা বড় ২/১ টি দিয়ে সাজাতে পারেন।

# ইচ্ছে করলে ড্রইং রুমে মরিচা বাতি সেট করে নিতে পারেন। এতেকরে ঈদের রাতে অতিথি আপ্যায়ানে আনবে এক নতুন মাত্রা, এক অন্যরকম পরিবেশ তৈরি হবে।

# আপনি ইচ্ছে করলেই রঙ্গিন কাগজ কেটেও বিভিন্ন ডিজাইন করে ঘর সাজাতে পারেন।

# ড্রইং রুম সাজাতে গিয়ে আবার বাথরুমের কথা ভুলে যাবেন না। বাথরুমের দিকেও বিশেষ নজর দিন। বাড়ির পরিস্কার পরিছন্নতা নির্ভর করে অনেকটা বাড়ির বাথরুমের উপর। তাই ঈদের আগের দিন কিংবা ঈদের দিন সকালে টয়লেটগুলো ভালোভাবে পরিস্কার করে রাখুন।

# আপনার বাড়ির বাথরুমে ঈদের দিন সকালে এয়ারফ্রেশনার দিন। সেইসঙ্গে নতুন সাবান, টিস্যু লাগিয়ে দিন।

এভাবে আপনি ইচ্ছে করলেই পুরোনো ঘরেও সাজ-গোছের মাধ্যমে নতুনত্ব আনতে পারেন। এতে করে আপনার ঈদ হবে আরও আনন্দদায়ক।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...