The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

এক দম্পতি বিছানায় শুতে গিয়ে দেখলেন বিষধর এক সাপ!

অস্ট্রেলিয়ার অন্যতম ও বিষধর সাপ হলো ইস্টার্ণ ব্রাউন স্নেক

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ এক দম্পতি প্রতিদিনের মতো বিছানায় শুতে গেলে। কিন্তু গিয়ে দেখলেন বিশাল এক সাপ! বিশাল ওই বিষধর সাপ দেখে হিম হয়ে গেলেন ওই দম্পতি।

প্রতিদিনের মতো সারাদিনের খাটুনির পরে রাতে খাওয়ার পর বিছানায় ঘুমোতে গিয়েছিলেন এক দম্পতি। দিনের শেষে বিছানায় গিয়ে সঙ্গীকে নিয়ে শুবেন সেই সময় এমন দৃশ্য দেখে তার হাড় যেনো হিম হয়ে গেলো। কারণ হলো তাদের শোয়ার আগেই বিছানা দখল করে রেখেছিল এক ভয়ঙ্কর বিষধর সাপ! এমন লোমহর্ষক ঘটনা ঘটেছে অস্ট্রেলিয়ার ব্রিসবেনে।

অস্ট্রেলিয়ার অন্যতম ও বিষধর সাপ হলো ইস্টার্ণ ব্রাউন স্নেক। পৃথিবীর দ্বিতীয় সর্বাধিক বিষধর সাপ বলে খ্যাত এই ইস্টার্ণ ব্রাউন স্নেক। জানা গেছে, সাপটি বিছানার চাদরের তলায় লুকিয়ে ছিল। শুতে যাওয়ার আগেই দম্পতির উপস্থিতি টের পেয়ে সে ফোঁস করে ওঠে। তা নাহলে তো হয়তো আরও বড় ঘটনা ঘটে যেতো।

ওই দম্পতি সাপটি বিছানায় দেখতে পেয়ে সঙ্গে সঙ্গেই স্নেক ক্যাচারকে খবর দেন। ব্রিসবেনের সেই স্নেক ক্যাচারই সাপটির ছবি ফেসবুকে আপলোড করেন। ওই স্নেক ক্যাচার জানিয়েছেন, এই সাপটি দৈর্ঘ্যে ৪.৫ ফুট লম্বা। এই বিষধর সাপ ৭ ফুট পর্যন্ত লম্বা হতে পারে বলে তিনি জানিয়েছেন।

যদিও ইস্টার্ন ব্রাউন স্নেক মানুষের বসবাস যেখানে, সেখানে খুব একটা আসেই না। তবে এরা খুবই সাংঘাতিক বিষধর হয়। তাই এখন থেকে ঘরের সমস্ত জানালা এবং দরজা সব সময় বন্ধ করে রাখবেন বলে জানিয়েছেন আতঙ্কিত ওই দম্পতি। তবে বিষধর ওই সাপের ছোবল থেকে বেঁচে যাওয়ায় গডকে ধন্যবাদ জানান ওই দম্পতি।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...