খুনের রহস্য বেরিয়ে এলো সেলফির কারণে!

কানাডীয় এক তরুণী নিজের বান্ধবীকে খুনের অভিযোগ অভিযুক্ত হলেন

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ বর্তমান সময়ে সেলফি যেনো এক স্টাইল এ পরিণত হয়েছে। সেলফির কারণে অনেক মানুষের জীবন যাচ্ছে সেটিও সত্যি। তবে এবার খুনের রহস্য বেরিয়ে এলো সেলফির কারণে!

এবার এক খুনের ঘটনার পর খুনের রহস্য জট খুলে গেলো সেলফিতে লুকিয়ে থাকা ক্ল্যুর কারণে। কানাডীয় এক তরুণী নিজের বান্ধবীকে খুনের অভিযোগ অভিযুক্ত হলেন।

আজ নয়, ২০১৫ সালের মার্চে মাসে ১৮ বছর বয়সে খুন হয়েছিলেন ব্রিটনি গার্গল নামে এক তরুণী। গার্গলের সঙ্গে শেয়েনেন রোজ অ্যান্টইনের একটি সেলফি পুলিশের হাতে আসার পর ওই ছবির সূত্র ধরে খুনের রহস্য জট খুললো। সম্প্রতি গার্গলকে খুনের দায়ে দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন শেয়েনেন। আদালত শেয়েনেনকে ৭ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত করেছেন।

জানা যায়, গার্গলের মরদেহ উদ্ধারের মাত্র কয়েক ঘণ্টা আগে ফেসবুকে একটি সেলফি পোস্ট করেছিলেন শেয়েনেন। ওই ছবিতে শেয়েনেন যে বেল্টটি পরেছিলেন সেই বেল্টটিই গার্গলের মরদেহের কাছে পাওয়া গিয়েছিলো। টরন্টো সানের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, এরা দু’জন খুব ঘনিষ্ট বন্ধু ছিলেন।

ধরা পড়ে যাওয়ার পর শেয়েনেন বলেছেন, ওইদিন তাদের মধ্যে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময় হয়। তার আগে তারা একসঙ্গে মদ এবং গাঁজা খেয়ে মাতাল অবস্থায় ছিলেন। এর পরের কোনো ঘটনাই তার মনে নেই বলে দাবি করেছেন শেয়েনেন। কিন্তু আদালত তার সেই দাবিকে উপেক্ষা করে সাজা কমিয়ে ৭ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত করেছেন।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...