The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

এখন থেকে টিভিতে খবর পড়বে রোবট!

চীনের সংবাদসংস্থা ঝিংহুয়া ও দেশটির সার্চ ইঞ্জিন কোম্পানি সোগোউ যৌথভাবে তৈরি করেছে পৃথিবীর প্রথম আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স দিয়ে চালিত এই নিউজ অ্যাঙ্কর

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ দিনকে দিন যেনো মানুষের চাহিদা কমে আসছে। শ্রম শক্তি এখন ক্রমেই রূপান্তরিত হচ্ছে প্রযুক্তি শক্তিতে। যেমন রোবট আবিষ্কারের পর থেকে মানুষের অনেক রকম কাজই হচ্ছে রোবট দ্বারা। এমনই একটি খবর হলো এখন থেকে টিভিতে খবর পড়বে রোবট!

এখন থেকে টিভিতে খবর পড়বে রোবট! 1

প্রযুক্তির উৎকর্ষে মানুষের জীবন যাত্রার মান আরও উন্নত হয়ে উঠছে তবে দিনকে দিন যেনো মানুষের চাহিদা কমে আসছে। শ্রম শক্তি এখন ক্রমেই রূপান্তরিত হচ্ছে প্রযুক্তি শক্তিতে। যেমন রোবট আবিষ্কারের পর থেকে মানুষের অনেক রকম কাজই হচ্ছে রোবট দ্বারা। এমনই একটি খবর হলো এখন থেকে টিভিতে খবর পড়বে রোবট!

এইসব রোবট দেখতে হুবহু মানুষের মতোই। কথাও বলবে যে কোনও নিউজ অ্যাঙ্করের ভঙ্গিতেই। দু:খেরর খবর হলে মুখ ভার করে পড়বে সেই খবর। আবার আনন্দের সংবাদ দেবে হেসে হেসেই। দেখে মনেই হবে না যে ‘তিনি’ আদতে মানুষই নন।

জানা গেছে, মানুষের মতো দেখতে রোবটই এবার টিভির খবর পড়বে। চীনে ইতিমধ্যেই তৈরি হয়েছে রোবট নিউজ অ্যাঙ্কর। আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স-এর প্রযুক্তির মাধ্যমে কাজ করবে এই রোবট সংবাদ পাঠক।

চীনের সংবাদসংস্থা ঝিংহুয়া ও দেশটির সার্চ ইঞ্জিন কোম্পানি সোগোউ যৌথভাবে তৈরি করেছে পৃথিবীর প্রথম আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স দিয়ে চালিত এই নিউজ অ্যাঙ্কর। এমন দু’টি সংবাদ পাঠককে প্রকাশ্যে হাজির করা হয়েছে বিশ্ব ইন্টারনেট সম্মেলনে।

ধারণা করা হচ্ছে যে, এই সংবাদ পাঠক টিভি চ্যানেল চালানোর খরচ অনেকখানি কমিয়ে দেবে। কারণ হলো এরা ২৪ ঘণ্টাই কাজ করতে পারবে। তাছাড়া খুব তাড়াতাড়ি ব্রেকিং নিউজ পড়তে পারবে এই রোবট নিউজ অ্যাঙ্কর।

এই দুই নিউজ অ্যাঙ্করকে চীনা এবং ইংরেজি ভাষায় খবর পড়ার জন্য পারদর্শী করা হয়েছে। অনলাইন, টিভি- সব জায়গাতেই এরা খবর পড়তে পারবে।

চায়না ইন্টারনেট সম্মেলনে যখন এই নিউজ অ্যাঙ্করদের প্রকাশ্যে আনা হয়, তখন একজন রোবট অ্যাঙ্কর বলেন, ‘আমাকে একজন সংবাদ পাঠকের ক্লোন হিসেবে তৈরি করা হয়েছে। আমাকে টিভির সংবাদ পরিবেশনা শেখানো হয়েছে। আমাকে লেখা সামনে দিয়ে দিলে আমি টেলিভিশনের অ্যাঙ্করদের মতোই খবর পড়তে পারি।’

চীন শুধু সংবাদ পাঠকই নয়, আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স ব্যবহার করে তারা তাদের পুলিশী ব্যবস্থাকেও ঢেলে সাজাচ্ছে বলে খবর বেরিয়েছে।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...