ব্যায়াম বা শরীরচর্চার পর যে ৮টি পুষ্টিকর খাবার খেতে হবে

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক॥ আপনি কি সকালে শরীরচর্চা বা ব্যায়াম করেন? সকালে ব্যায়াম করার ফলে আপনার শরীরের প্রোটিন, তরল এবং কার্বোহাইড্রেটের ঘাটতি তৈরি হয়। ফলে আপনার শরীর যদি প্রয়োজনীয় খাবার না পায় তবে আপনি দুর্বল হয়ে পড়বেন। চিন্তিত হবেন না আমরা আপনাকে আপনার শরীরচর্চার পর যে সব খাবার খেতে হবে তার তালিকা জানাচ্ছি। জানতে হলে বিস্তারিত পড়ুন…


bodybuilding-diet11

আপনি যখন ব্যায়াম করেন তার ৩০ মিনিট পর আপনার খাবার খাওয়া প্রয়োজন। কারণ এ সময় আপনার শরীর সঞ্চিত শক্তি ব্যবহার করে ফলে আপনার শরীরে পুনরায় আরও শক্তি সঞ্চয় প্রয়োজন হয়। আপনার শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় কিছু খাবারের তালিকা।

_67707554_ashes-promo-624

ডিমের অমলেটঃ আপনার ব্যায়ামের পর আপনার শরীরের পেশী গঠনের জন্য প্রচুর পরিমাণ প্রোটিনের প্রয়োজন হয়। ডিমের অমলেটে রয়েছে প্রচুর প্রোটিন। সাথে আপনি এমাইনো এসিড আছে এমন খাবার খাবেন। এমাইনো এসিড আপনার ব্যায়ামের ফলে ক্ষতিগ্রস্থ টিস্যু সমূহ পুনর্গঠনে সাহায্য করবে।

cereal3

খাদ্যশস্য মিশ্রণঃ খাদ্যশস্য অর্থাৎ ডাল জাতীয় খাবার। ডাল জাতীয় খাবারে রয়েছে প্রোটিন এবং কার্বোহাইড্রেট। ডাল জাতীয় খাবার খেলে আপনার পেশীতে শক্তি সঞ্চিত হতে সুবিধা হবে। পেশীর গঠনও মজবুত হবে। ডাল জাতীয় খাবার আপনার শরীরের বিপাক ক্রিয়া সঠিক হতে সাহায্য করবে। এটি বাজারে কর্ণ ফ্লেক্স নামে পাকেটে পাওয়া যায়।

Screenshot_1

মিষ্টি আলুঃ মিষ্টি আলুতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণ শর্করা, ফাইবার, ভিটামিন সি, ম্যাঙ্গানিজ ও পটাশিয়াম। আপনার ব্যায়াম শেষে আপনার শরীরের গ্লাইকোজেন স্তর অনেক নিচে নেমে যায়। মিষ্টি আলু আপনার গ্লাইকোজেন স্তর বাড়াতে সাহায্য করবে এবং শরীরে শর্করা, ফাইবার, ভিটামিন সি এর ঘাটতি কমাবে।

Screenshot_2

সাদা ভাতঃ যদিও সাদা ভাত আমরা সবাই খাই তার পরও অনেকেই জানেন না সাদা ভাতের কার্যকরী উপাদান সমূহের কথা। সাদা ভাত আপনার শরীরের গ্লাইকজেন লেভেল বাড়াতে সাহায্য করবে এ ছাড়াও সাদা ভাত সুগার রেটও বাড়ায় যা ব্যায়ামের পর শরীরের জন্য খুবি দরকারি।

Screenshot_3

শুকনো ফলঃ ড্রাইফুড অর্থাৎ শুকনো ফল মূল আপনার ব্যায়াম শেষে শরীরের গঠনের জন্য বিশেষ ভূমিকা রাখে। ড্রাইফুডে রয়েছে প্রচুর পরিমাণ প্রোটিন, কার্বোহাইড্রেট, ভিটামিন এ, ভিটামিন এবং ক্যালসিয়াম। সুতরাং ব্যায়াম শেষে আপনি যদি ড্রাইফুড খান এতে আপনার শরীরের এনার্জি লেভেল অনেক বেড়ে যাবে।

Screenshot_4

বাদাম জাতীয় খাবারঃ বাদামে রয়েছে প্রচুর আইরন ও ভিটামিন সি। এছাড়াও বাদাম প্রোটিন ও কার্বোহাইড্রেটের একটি বিশেষ উৎস। বাদামকে শরীরচর্চার শেষে বিশেষ খাবার হিসেবে বিবেচনা করা হয়ে থাকে।

Screenshot_5

মুরগির মাংসঃ মুরগির মাংসে রয়েছে প্রোটিন, ওমেগা-৩ ও এমাইনো এসিড। ফলে ব্যায়াম শেষে মুরগির মাংস খেলে আপনার শরীরের প্রোটিনের ঘাটতি অনেক আংসে কমে আসবে। এছাড়া মুরগির মাংস আপনার বিপাক ক্রিয়া সচল রাখতে সাহায্য করবে।

Screenshot_6

ফল মূলঃ ফল মূলে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার, পানি, ভিটামিন C এবং কার্বোহাইড্রেট। ফল মূল আপনার শরীরের ব্যায়ামের ফলে ক্ষতিগ্রস্ত পেশীর সুগঠনে আপনাকে সহায়তা করবে। ব্যায়ামের পর তাজা ফল মূল খেয়ে শরীর সজীব ও অন্ত্রে বিপাক ক্রিয়া সঠিক ভাবে সম্পূর্ণ হয়।

সূত্রঃ ইন্ডিয়া টাইমস

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...