The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

বিমানে ভ্রমণের সময় করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধ করবেন যেভাবে

বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাসে (COVID-19) আক্রান্তের সংখ্যা দিনে দিনে বেড়েই চলেছে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ বিমানে ভ্রমেণ মারণব্যধি করোনা ভাইরাস নিয়ে বেশ সমস্যায় পড়তে হচ্ছে। কারণ একমাত্র বিমান যাত্রীদের নিকট থেকেই ছড়িয়ে পড়ছে এই ভাইরাসটি। বিমানে ভ্রমণের সময় করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধ করবেন যেভাবে তা জেনে নিন।

বিমানে ভ্রমণের সময় করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধ করবেন যেভাবে 1

বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাসে (COVID-19) আক্রান্তের সংখ্যা দিনে দিনে বেড়েই চলেছে। আর এই বেড়ে যাওয়ার মূল কারণ হলো বিমানে আক্রান্ত দেশ থেকে ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়া। যে কারণে বিমানবন্দরগুলিতে বিধিনিষেধগুলি আরও কঠোর হয়ে উঠেছে এবং ইন্টারন্যাশনাল বিমানবন্দরগুলিতেও এর প্রতিরোধমূলক সুরক্ষা ব্যবস্থাও গ্রহণ করা হচ্ছে। করোনা ভাইরাসের কারণে বর্তমানে প্রায় সব বিমানবন্দরগুলিই যাত্রীদের পরীক্ষা-নীরিক্ষা করছে।

যখন আপনি বিমানের অভ্যন্তরে থাকবেন তখন যদি আপনার পাশের ব্যক্তিটি হাঁচি বা কাশি দেয় তাহলে আপনি কখনই সেটি এড়াতে পারবেন না।

তবে অবশ্যই নিজেকে সুস্থ রাখতে নিচের পরামর্শগুলি মেনে চলুন:

# হাত পরিষ্কার রাখুন, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কেন্দ্রগুলি জীবাণুর পরিমাণ কিছুটা হ্রাস করার জন্য হাত ধোয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়। হাতে সাবান দিয়ে পরিষ্কার পানিতে হাত ধোবেন।

# স্যানিটাইজার ব্যবহার করুন ফ্লাইটে থাকার সময় অবশ্যই হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করুন। মাঝে মাঝেই হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করুন, বিশেষত আপনি যখন ওয়াশরুমে যাবেন কিংবা আপনার খাবার খেতে ট্রে-তে হাত দেবেন তখন অবশ্যই হাত পরিষ্কার রাখুন।

# মাস্ক পরুন, ফ্লাইটের অভ্যন্তরে মাস্ক ব্যবহার করলে তা আপনাকে বাতাসের যেকোনও জীবাণু থেকে রক্ষা করবে। যখন কেও কাশি বা হাঁচি দেয় তখন বাতাসে জীবাণু মিশে যায় যা আপনাকেও সংক্রামিত করতে পারে। সে কারণে ফেস মাস্ক আপনার নাক এবং মুখকে এই জীবাণু থেকে রক্ষা করতে পারে।

# নিজেকে হাইড্রেটেড রাখুন। আপনি যখনই আকাশপথে ভ্রমণ করবেন তখন নিজেকে হাইড্রেটেড রাখতে এক বোতল পানি নিয়ে যান কারণ আপনার শরীরে পানি কম থাকলে ভাইরাস বা ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণের সম্ভাবনা আরও বাড়িয়ে তোলে।

# নাক, চোখ ও মুখ স্পর্শ করা থেকে বিরত থাকুন। ভাইরাস বা ব্যাকটেরিয়া দ্বারা দূষিত আঙ্গুলের সাহায্যে আপনার নাক, চোখ এবং মুখ স্পর্শ করলে জীবাণু খুব সহজেই ছড়িয়ে যায়। নিজেকে সংক্রামিত হতে রোধ করতে মুখের এই উন্মুক্ত অঞ্চলগুলি হতে আপনার হাত দূরে রাখুন।

# ন্যাসাল স্প্রে ব্যবহার করুন যদি আপনি মনে করেন আপনার নাক শুকিয়ে যাচ্ছে, তাহলে এই স্প্রে-টি ব্যবহার করুন কারণ এটি সংক্রমণ রোধে কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারে। আপনার নাকের শ্লেষ্মা ঝিল্লি শুকিয়ে গেলে তা সংক্রমণের ঝুঁকি আরও বাড়ায়।

# চোখে ড্রপ ব্যবহার করুন। কারণ এটি শুকনো এবং চুলকানি দূর করতে সাহায্য করে।

# নিজের খাবার নিজেই বহন করুন। বিমানের ভ্রমণ করার সময় আপনার খাবার বহন করুন। কারণ এটি সংক্রমণের ঝুঁকি হ্রাস করবে ও ফ্লাইটে দেওয়া খাবারের চেয়ে অনেকটা স্বাস্থ্যকর হবে।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...