The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

করোনাকে জয় করলেন বিশ্বের অর্ধকোটি মানুষ

করোনায় আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়তে থাকলেও সুস্থ হয়ে উঠার সংখ্যাও নেহায়েত কম নয়

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ অনেক হাহাকার ও আতঙ্ক গ্রাস করলেও শেষ পর্যন্ত বিশ্বের অন্তত অর্ধকোটি মানুষ প্রাণঘাতি মহামারি করোনা ভাইরাসকে জয় করলেন।

করোনাকে জয় করলেন বিশ্বের অর্ধকোটি মানুষ 1

করোনায় আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়তে থাকলেও সুস্থ হয়ে উঠার সংখ্যাও নেহায়েত কম নয়। ইতিমধ্যেই সেই সংখ্যা অর্ধকোটি পার হয়ে গেলো।

শুরু থেকে করোনা সংক্রান্ত পরিসংখ্যান প্রকাশ করে আসা ওয়ার্ল্ডোমিটার ইনফো জানিয়েছে, বুধবার বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত বিশ্বজুড়ে করোনাকে জয় করলেন ৫০ লাখ ৭৮ হাজারেরও বেশি মানুষ।

পুরা বিশ্বে বর্তমানে এই পর্যন্ত ৪ লাখ ৮০ হাজরের বেশি মানুষ করোনায় মারাও গেছেন। আক্রান্তের সংখ্যা ৯৪ লাখের কাছাকাছি এসে দাঁড়িয়েছে।

আক্রান্ত ও মৃতের তালিকায় শীর্ষে থাকা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যাও বেশি। দেশটিতে মারা গেছেন এক লাখ ২৩ হাজারের বেশি মানুষ ও আক্রান্ত ছাড়িয়েছে ২৪ লাখ। এর মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১০ লাখ ২০ হাজারেরও বেশি মানুষ।

আক্রান্ত ও মৃতের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ব্রাজিলে সুস্থ হয়ে উঠেছেন অন্তত ৬ লাখ ১৩ হাজার জন। দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছেন সাড়ে ১১ লাখের বেশি মানুষ। এর মধ্যে মৃতের সংখ্যা ৫২ হাজার ছাড়িয়েছে।

আক্রান্তের তালিকায় তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে রাশিয়া। সেখানে সুস্থ হয়ে উঠেছেন প্রায় ৩ লাখ ৭০ হাজার মানুষ। দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ৬ লাখ ছাড়িয়েছে। মারা গেছেন অন্তত সাড়ে ৮ হাজারের বেশি মানুষ।

৬ লাখ ৬১ হাজার আক্রান্ত নিয়ে তালিকাতে ৪র্থ অবস্থানে থাকা ভারতে সুস্থ হয়ে উঠেছেন অন্ততপক্ষে ২ লাখ ৬১ হাজারের বেশি মানুষ। মারা গেছে সাড়ে ১৪ হাজারেরও বেশি মানুষ।

ভারতের পরেই বেশি আক্রান্ত হলো যুক্তরাজ্যে, সেখানে ৩ লাখ ছাড়িয়েছে। দেশটিতে মৃতের সংখ্যা প্রায় ৪৩ হাজারের মতো। তবে সুস্থ হয়ে উঠার সংখ্যা এখনও প্রকাশ করেনি দেশটির কর্তৃপক্ষ।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...