পরীক্ষার হলে নকল প্রতিরোধে নতুন প্রযুক্তি উদ্ভাবন!

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক॥ সাধারণত আমরা পরীক্ষার হলে যা দেখি তা হচ্ছে শিক্ষক গার্ড দিচ্ছেন যেন কোন পরীক্ষার্থী নকল করতে না পারেন তারপরও অনেকেই নকল করতে সফল হন। এই সমস্যা এড়াতেই নতুন প্রযুক্তি উদ্ভাবন করা হল। এটি পরীক্ষার্থীদের মনিটরিং করবে যাতে তাঁরা নকল করতে না পারে।


Copying-In-The-Exam

এখন থেকে শিক্ষকদের পরীক্ষার হলে নকল নিয়ে নিশ্চিন্ত থাকতে যে প্রযুক্তি উদ্ভাবিত হয়েছে এর নাম দেয়া হয়েছে PocketHound। নতুন বহনযোগ্য মোবাইলের মাধ্যমে চলা এই PocketHound নিরবে পরীক্ষা কক্ষে পরীক্ষার্থীদের উপর নজর রাখবে এবং যে সকল পরীক্ষার্থী অসাধু উপায় অবলম্বন করবে তাকে চিহ্নিত করবে।

অনেক পরীক্ষার্থী পরীক্ষার হলে আসেন মোবাইলে নোট কিংবা ম্যাসেজিং এর মাধ্যমে নকল নিয়ে যা তাঁরা পরীক্ষকের চোখে ধূল দিয়ে খাতায় তুলে ফেলেন। এই সব ধরণের অপকর্ম যে সব পরীক্ষার্থী হলে করে থাকেন তাদের জন্যই PocketHound তৈরি করা হয়েছে।

PocketHound একটি বিশেষ সেন্সেটিভ মোবাইল ফোন ডিটেক্টর এটি মোবাইলের মাধ্যমে আদান প্রদান করা খুবই সূক্ষ্ম তরঙ্গও ধরে ফেলতে পারবে। যেমন কোন পরীক্ষার্থী যদি পরীক্ষা কক্ষে কোন টেক্স ম্যাসেজিং করে থাকে কিংবা মোবাইল সুইচ অন করে তবে PocketHound সাথে সাথে শব্দ করে জলে উঠবে। PocketHound হলে সবধরনের মোবাইল ফোনের তরঙ্গ পর্যালোচনা করতে সক্ষম এবং এর ব্যাটারি এক টানা ২ ঘন্টা চলতে পারে।

PocketHound এর আশাপাশে প্রায় ৭৫ ফুট দূরে সকল মোবাইল ফোনের সকল প্রকার তরঙ্গের আদান প্রদান নজরে রাখতে পারে। যেমন যদি কোন পরীক্ষার্থী পরীক্ষা কক্ষে তাঁর মোবাইল থেকে কোন কিছু নকল করতে চায় সে ক্ষেত্রে হয় তাঁর মোবাইলের বাতি জ্বলবে অন্যথায় এটি ভাইব্রেশান দিবে PocketHound এজাতীয় সকল কাজ সূক্ষ্মভাবে মনিটরিং করবে এবং শিক্ষক বুঝে যাবেন হলে কেউ মোবাইল ফোন ব্যবহার করছেন নকল করার কাজে! এতেই নকল যে করবে সে ধরা পরে যাবে।

Berkeley Varitronics Systems নামে এক প্রযুক্তি পণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান PocketHound তৈরি করেছেন। এর দাম ধরা হয়েছে ৫০০ ডলার।

সূত্রঃ দি টেকজার্নাল

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...