রিয়াল মাদ্রিদের অভিযোগ নাকচ করে দিলেন মেসুত ওজিল

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক॥ ২৪ বছর বয়স্ক জার্মান মিডফিল্ডার মেসুত ওজিল জানান সান্টিয়াগো বার্ণাব্যুতে থাকাকালীন তিনিই ছিলেন সবচেয়ে মনোযোগী খেলোয়াড়, যে প্রতিটি খেলার জন্য প্রস্তুত থাকতো এবং ট্রেনিং এর পারফর্ম্যান্স মাঠের খেলায় অনূদিত করতো। কিন্তু মাদ্রিদের জন্য এতো করা স্বত্তেও ক্লাবের উচ্চ পদস্থদের কাছ থেকে যোগ্যতানুযায়ী মূল্যায়ণ পাননি ওজিল।


Mesut Ozil

রিয়াল মাদ্রিদের প্রেসিডেন্ট ফ্লোরেন্টিনো পেরেজ অভিযোগ করে বলেছেন, “অপেশাদারিত্ব আচরণের জন্য ওজিলকে বিক্রি করে দিয়েছে রিয়াল।” সেই সাথে ওজিল হতাশাগ্রস্ত ছিলো এবং রাতে বারগুলোতে নারীদের নিয়ে মেতে থাকতেন বলেও অভিযোগ তুলেছেন মাদ্রিদ প্রেসিডেন্ট। যেগুলোকে সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছেন ওজিল। পেরেজের এই অপপ্রচারের বিরুদ্ধে ওজিলের বাবা আইনগত ব্যবস্থা নিবেন বলে জানা গেছে।

এ সম্পর্কে ওজিলের মতামত জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, “রিয়াল মাদ্রিদের প্রতি যে সম্মানটুকু আমার অবশিষ্ট ছিলো সেটুকু এখন উবে গেছে। তবু আমি কোনো খারাপ কথা মুখে আনতে চাইনা কারণ মাদ্রিদে আমার চমৎকার তিনটি বছর কেটেছে। আমরা ট্রফি জিতেছি এবং খেলার মাঠে অনেক স্মরণীয় ঘটনা ঘটেছে। সেখানকার সমর্থক এবং কর্মচারীরাই বলতে পারবে আমি কতোটুকু পেশাদার খেলোয়াড় ছিলাম।”

“আমি ১৫৯ টি ম্যাচ খেলেছি, আপনি পেশাদার খেলোয়াড় না হলে কখনোই এতোগুলো ম্যাচ খেলতে পারবেন না। এতো ম্যাচ খেলা স্বত্তেও মাদ্রিদ আমার ওপর আস্থা ও আমার যোগ্যতার মূল্যায়ণ করেনি। এই ব্যাপারটি কঠিন ছিলো আমার জন্য, তবে দল বদলের সময় আর্সেনাল কোচ আর্সেন ওয়েঙ্গার ফোনে আমার উপর পূর্ণ বিশ্বাস রেখেছেন যেটা আমাকে পুলকিত করেছে। এখন আমি ইংলিশ লীগে খেলতে যাচ্ছি, আশা করছি নিজেকে আরও প্রমাণ করবো।”

তথ্যসূত্রঃ গোল.কম

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...