মঙ্গল গ্রহের আবহাওয়া বিষয়ে গবেষণায় মনুষ্যহীন মহাকাশ যান পাঠাল নাসা

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক॥ নাসা এরই মাঝে জানিয়েছিল পৃথিবীর প্রতিবেশী গ্রহ মঙ্গলে অতীতে পানি এবং জীবনের অস্তিত্ব ছিল এবার এইসব বিষয়ে আরও বিস্তারিত গবেষণা চালাতে মঙ্গলে মনুষ্যহীন মহাকাশ যান ম্যাভেন পাঠাল।


Mars Maven

মঙ্গলে নাসার পাঠানো এই মনুষ্যহীন মহাকাশ যানের পূর্ণ নাম মার্স অ্যাটমোস্ফিয়ার অ্যান্ড ভোলাটাইল ইভল্যুশন (ম্যাভেন)। এর প্রধান কাজ হবে মঙ্গলের আবহাওয়া সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা নেয়া এবং গবেষণা চালানো।

frame_0009

মহাকাশ যানটি বহন করে নিয়ে যাওয়া রকেটের নাম হচ্ছে Atlas V 401। সম্পূর্ণ যান তৈরিতে নাসার খরচ হয়েছে প্রায় ৬৭১ মিলিয়ন ডলার যা বাংলাদেশী টাকায় ৫২০০ কোটি টাকা। এটি প্রায় ১০ মাস সময় মহাকাশে অতিবাহিত করে ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বার নাগাদ মঙ্গলে পৌঁছাবে।

2013-11-18T190718Z_1030131390_GM1E9BJ08KP01_RTRMADP_3_SPACE-MARS-LAUNCH

নাসার এই মহাকাশ যানের অভিযান অনেকটা ভিন্ন ধরণের কারণ এর গবেষণার মূল টার্গেট মঙ্গলের ভূগর্ভস্থ ভেজা মাটি নয় এর মাধ্যমে মঙ্গলের আবহাওয়া এবং বায়ুমণ্ডল পরীক্ষা করা হবে। মঙ্গলের আবহাওয়া মণ্ডলে আগে কখনও পরীক্ষা চালানো হয়নি। নাসার এই মহাকাশ মিশনের প্রকল্প পরিচালক ডেভিড মিচেল বলেন, মহাকাশযানটি মঙ্গলের ঊর্ধ্বাকাশের রহস্য উদ্ঘাটনে গবেষণা চালাবে।

নাসার মিশন পরিচালক আরও বলেন, সব কিছু ঠিক থাক ভাবে সম্পূর্ণ হয়েছে আগামী ১০ মাস পর এই মিলিয়ন ডলারের মহাকাশ যান তার কাজ শুরু করবে। মার্স অ্যাটমোস্ফিয়ার অ্যান্ড ভোলাটাইল ইভল্যুশন মহাকাশে প্রায় ৬ হাজার কিলোমিটার উচ্চতায় থেকে মঙ্গল প্রদক্ষিণের মাধ্যমে এর বৎসরকাল দীর্ঘ সময়ের মিশন পরিচালনা করবে। এটি মঙ্গলের আকাশের বিভিন্ন স্থরের বায়ুমণ্ডল পরীক্ষা নিয়ে বিস্তারিত গবেষণা করবে।

এই মহাকাশ যানের প্রধান কাজ হবে কিভাবে লাল গ্রহ মঙ্গলের অতীতের পানি আজ শুকিয়ে গেছে ঠিক কি ধরণের আবহাওয়া পরিবর্তন হয়েছিল সে সময় এসব প্রশ্নের উত্তর খুজে বাহির করা।

সূত্রঃ Economictimes

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...