The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

স্টেরয়েড দেয়া গরু চেনার সহজ উপায়

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ বর্তমানে কোরবানীর গরু কেনার ক্ষেত্রে সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ হচ্ছে যদি গরুতে মোটা তাজা করতে স্টেরয়েড দেয়া হয়ে থাকে। আমাদের আজকের পোস্টে আমরা আপনাদের জানানোর চেষ্টা করবো কিভাবে আপনি বুঝতে পারবেন একটি গরুকে মোটা বানাতে স্টেরয়েড দেয়া হয়েছে কিনা!


1289369411_136604632_2-qurbani-cow-for-sale-Gujranwala-1289369411_result

ইসলামে করবানীর ঈদে সবার লক্ষ্য থেকে নিজ নিজ সাধ্য অনুজাই একটি সুন্দর এবং স্বাস্থ্যবান গরু কোরবানী দেয়া। তবে বর্তমান সময়ে সব কিছুতেই ভেজাল হচ্ছে ফলে আপনি কোন কিছুই আর নিশ্চিন্তে কিনে নিতে পারবেন না। স্টেরয়েড প্রয়োগ করার ফলে গরু মোটা হয় কিন্তু স্টেরয়েড প্রয়োগ করা গরুর মাংস খেলে বিষাক্ত মাংস আপনার শরীরে গিয়ে নানান প্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে। তাই কেনার আগেই আপনার জানা থাকা দরকার কোন গরুতে স্টেরয়েড প্রয়োগ করা হয়েছে সেই বিষয়ে। কিভাবে বুঝবেন একটি গরুতে স্টেরয়েড প্রয়োগ করা হয়েছে?

১) গরু কম প্রস্রাব করবে-

সাধারণত স্টেরয়েড প্রয়োগ করার ফলে গরুর কিডনি বিকল হয়ে যায়, এতে করে গরু মোটা তাজা হয় ঠিকি সব টাই পানি, আর গরুর কিডনি যেহেতু বিকল থাকে ফলে গরু খুব কম মূত্র ত্যাগ করবে।

২) গরু শান্ত হবে-

আপনি যদি দেখেন খুব স্বাস্থ্যবান গরু কিন্তু নড়াচড়া তেমন করছেন, দেখেই মনে হবে দুর্বল। তবে এক্ষেত্রে অবশ্যই ওই গরুতে সন্দেহ আছে। স্টেরয়েড প্রয়োগ করা গরু শারীরিক ভাবে অনেক দুর্বল থাকে। এসব গরু যেকোনো সময় লুটিয়ে পড়তে পারে। অনেক সময় অজ্ঞ্যান হয়ে যায় হঠাত করেই। সে হাটতে চাইবেনা কোন মতেই।

৩) চামড়ায় পানি-

অনেক স্বাস্থ্যবান গরু কিন্তু চামড়ায় নিচে সব পানি, কিভাবে বুঝবেন? আপনি গরুর ঊরুতে চাপ দিবেন কিংবা চামড়া টেনে দেখবেন যদি চাপ দিলে চামড়া আবার আগের যায়গায় আসতে কিছুটা সময় নেয়, ধরে নেয়া যায় এই গরুর শরীরে পানি জমেছে। স্টেরয়েড প্রয়োগ করা গরুর কিডনি বিকল থাকে তাই শরীরে পানি এসে স্বাস্থ্য বিশাল হয়ে যায়।

৪) অস্বাভাবিক স্বাস্থ্য-

সাধারণত একটি গরু প্রাকৃতিক ভাবে মোটা তাজা করা হলে এর একটা সীমা থাকবে স্বাভাবিক এর চাইতে অনেক বেশি স্বাস্থ্য হলেই বুঝতে হবে এই গরুতে নিশ্চিত কিছু দেয়া হয়েছে কিংবা খাওয়ানো হয়েছে।

৫) গরু কিছুই খাবেনা-

স্টেরয়েড প্রয়োগ করা গরু শারীরিক ভাবে সুস্থ থাকেনা ফলে সে স্বাভাবিক খাবার খেতে চায়না। আপনি তাকে যাই দেন না কেনো সে সব খাবারেই অনিহা দেখাবে।

উপরের সব ধাপ মিলিয়ে যদি কম পক্ষে ৩ টি ধাপ এর সাথে কোন গরুর মিলে যায় সেই গরু কেনা থেকে আপনাকে অবশ্যই বিরত থাকতে হবে। মনে রাখবেন আপনি আল্লাহ্‌ কে সন্তুষ্ট করতে করবানী দিচ্ছেন এখানে কোন মতেই অসুস্থ কিংবা ক্যামিকেল দেয়া গরু করবানী দেয়া থেকে আপনাকে সতর্ক থাকতে হবে। তাই হাটে যাওয়ার আগে নিজে জানুন এবং অন্যকে সতর্ক করুন।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...