সঙ্গীনিকে আকৃষ্ট করতে পুরুষ ইঁদুরের গান!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ইঁদুর নিয়ে অনেক গবেষণা হয়েছে। এবার গবেষকরা বলছেন এক ব্যতিক্রমী কথা। আর তা হলো সঙ্গীনিকে আকৃষ্ট করতে নাকি পুরুষ ইঁদুর গান করে!

rats song

মানুষ গান শুনতে পছন্দ করে- এ কথাটি আমাদের সকলের জানা। কিন্তু তাই বলে ইঁদুরও যে গান পছন্দ করে সেটি মনে হয় কারো জানা ছিল না। কিন্তু এমনই একটি খবর বেরিয়েছে। সঙ্গীনিকে আকৃষ্ট করতে পুরুষ ইঁদুর নাকি গান করে। গান পছন্দের বিষয়টি না হয় মেনে নেওয়া গেলো। কিন্তু তাই বলে সুন্দরী নারী ইঁদুরকে আকৃষ্ট করতে গান! এও আবার সম্ভব? হয়তো ভাবছেন যতো সব উদ্ভট কথা। কিন্তু না গবেষকরা গবেষণা করেই এমন কথা বলছেন।

rats song-2

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের একটি খ্যাতনামা জার্নালে প্রকাশিত একটি গবেষণার প্রতিবেদনে এমন খবর বলা হয়েছে। ওই প্রতিবেদনে বিজ্ঞানীরা বলেছেন, ইঁদুরও গান গাইতে পারে। পুরুষ ইঁদুর নারী ইঁদুরকে আকৃষ্ট করতে ঠিক পাখির মতো করে গানও গায়। আবার গান গাইতে তারা ঋতু, সময় ও আবহাওয়ার ওপর ভিত্তি করে তাদের গলার স্বরও পরিবর্তন করে থাকে।

গবেষকদের আরও দাবি করে বলেছেন যে, ইঁদুর পাখি ও মানুষের চেয়েও নাকি ভাল গান গেয়ে থাকে। ইঁদুরের গান গাওয়ার বিষয়টি নতুন কিছু নয়- ‍আগেই প্রমাণ পেয়েছিল যুক্তরাষ্ট্রের নর্থ ক্যারোলিনার ডিউক ইউনিভার্সিটির গবেষক দল।

পরিচালিত গবেষণায় বলা হয়েছে, নারী ইঁদুরকে আকৃষ্ট করতেই গান গাওয়ার বিষয়টি আবিষ্কার করেন ওই গবেষকরা। গবেষণায় তারা পাশাপাশি দুইটি খাঁচায় কিছু পুরুষ ও নারী ইঁদুর রেখে পরীক্ষা চালান।

গবেষকরা তাদের উচ্চ মাত্রার স্বর ধারণ ও বিশ্লেষণ করতে বিশেষ এক ধরনের যন্ত্রও ব্যবহার করেন। মানুষের শ্রবণ শক্তির চেয়ে ইঁদুরের শ্রুতি ক্ষমত‍া অনেক বেশি এমন যন্ত্র ব্যবহার করা হয়। গবেষকরা আওয়াজ ধারণ করে দেখেছেন যে, পুরুষ ইঁদুর নারী ইঁদুরের শরীরের গন্ধ পাওয়ার সাথে সাথেই গান গাওয়া শুরু করে। অর্থাৎ একটি খাঁচায় থাকা পুরুষ ইঁদুর যখন আরেকটি নারী ইঁদুরকে দেখতে পায় তখন গান গাওয়া শুরু করে। নারী ইঁদুরটি যখন পুরুষ ইঁদুরের দিকে তাকায়, তখন তারা আরও কোমল স্বরে গান গাওয়া শুরু করে। গবেষকদের বিশ্লেষণে দেখা গেছে যে, গানের স্থায়ী-অন্তরা-সঞ্চারী-আভোগ-এর আরোহণ ও অবরোহণও অনেকটা সাবলীল হয়।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...