হনুমানের আক্রমণে অতিষ্ঠ ভারতের রেল পুলিশ!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ভারতের পশ্চিমবঙ্গের রেল শহর চিত্তরঞ্জনে গত এক মাস ধরে এক হনুমান পুলিশ দেখলেই আক্রমণ করছে। দুর্র্ধষ এই হনুমান এই পর্যন্ত কামড়েছে অন্তত ১৫ পুলিশ সদস্যকে!

Police & Hanuman attack

আতঙ্কিত রেল পুলিশ শেষ পর্যন্ত গ্রেফতার করে খাঁচায় বন্দী করেছে ওই হনুমানটিকে। গত একমাস ধরে এই হনুমানের ভয়ে খাকি পোষাক পরে ডিউটিতে আসতে ভয় পাচ্ছিলেন রেল পুলিশ কর্মীরা।

হনুমানের কামড় খাওয়া এক রেল পুলিশকর্মী বলেছেন, ‘ডিউটি করার সময় কোথা থেকে লাফিয়ে এলো আর কামড়ে দিলো হনুমানটা। এভাবে ডিউটি করা যায় নাকি?’

রেলের ইঞ্জিন কারখানাকে কেন্দ্র করেই গড়ে উঠেছে এই শহরটি। তাই সেখানে রেল সুরক্ষা বাহিনী যাবে বলে আর পি এফের উপস্থিতি রয়েছে অনেক।

চিত্তরঞ্জনের ভারপ্রাপ্ত রেল সুরক্ষা কমিশনার শ্যামসুন্দর তিওয়ারি বিবিসিকে বলেছেন, ‘প্রায় ১৫ জন রেল পুলিশকে কামড়েছে ওই হনুমানটি। কর্মীদের মধ্যে একটি আতঙ্ক তৈরি হয়েছে।’

রেল পুলিশই নাকি ওই হনুমানটির মূল টার্গেট। তবে ২ জন সাধারণ নাগরিককেও কামড়েছে ওই হনুমানটি। বাচ্চাদের বাড়ির বাইরে একা পাঠাতে ভয় পাচ্ছিলেন এলাকার মানুষ।

তবে পুলিশের ওপরে কেনো যে হনুমানটির এতো রাগ তা বোঝা যায় নি। কিন্তু হনুমানটির পায়ে একটা চোট দেখে মনে করা হচ্ছে, হয়তো কোনও খাকি পোষাক পরা কেও ওই হনুমানটিকে আঘাত করেছিলো, সেই থেকেই হয়তো খাকি পোষাকের ওপরে তার এতো ক্ষোভ।

রেল চিঠি দিয়েছিল বন দপ্তরকে নুমানটিকে ধরার জন্য। অবশেষে গত সোমবার বিকেলে ধরা পড়েছে ওই হনুমানটি।

রেল সুরক্ষা কমিশনার শ্যামসুন্দর তিওয়ারি জানান, ‘বন দপ্তরের কর্মীরা খাঁচা নিয়ে এসেছিলেন। অনেক কসরত করে হনুমানটিকে ধরা গেছে। খাঁচার মধ্যে কলা ঝুলিয়ে রেখে ফাঁদ পাতা হয়েছিল। হনুমানটি ধরা পড়ার পর হতে আমাদের মনে শান্তি ফিরে এসেছে। গত একমাস ধরে যা হয়েছে!’

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...