The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

মুগ্ধ নাসা: ৫ বছরের শিশুর ‘রকেট’ ডিজাইন!

নিজের স্বপ্নকে সফল করতে ৫ বছরের এই শিশু বানিয়ে ফেলেছে রকেটের একটি ডিজাইন!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ শিশুরাও অনেক সময় নানা কাজ করে আলোচনায় উঠে আসে। যেমন এবার আলোচনায় উঠে এসেছে ব বছরের এক শিশু। ৫ বছরের শিশুর ‘রকেট’ ডিজাইন দেখে মুগ্ধ নাসা!

মুগ্ধ নাসা: ৫ বছরের শিশুর ‘রকেট’ ডিজাইন! 1

নিজের স্বপ্নকে সফল করতে ৫ বছরের এই শিশু বানিয়ে ফেলেছে রকেটের একটি ডিজাইন। শুধু সেখানেই শেষ নয়, ছোট্ট ইদ্রিস হিল্টন নামে ওই শিশুর স্বপ্নের উড়ানে যাতে কোনও বাধা না আসে তাই তার বাবা জামাল রকেটের ডিজাইনটি পাঠিয়ে দেন নাসা’র সদর দপ্তরে। সঙ্গে ছিল ইদ্রিসের লেখা একটি চিঠি।

তাতে লেখা হয়েছিল ‘এই রকেটটা তোমাদের জন্য। প্লিজ এটা তৈরি করে স্পেসে কোনও মহাকাশচারীর কাছে পাঠিয়ে দিও। আমিও স্পেসে নাসা’র হয়ে নিজের রকেট চালাতে চাই।’ সঙ্গে আবদার ছিল একটি অ্যাস্ট্রোনট লাইসেন্সেরও।

হার্টফোর্ডশায়ারের সেন্ট আলবানসের বাসিন্দা জামাল তার ছেলের তৈরি করা রকেটের ব্লু-প্রিন্ট ও চিঠি গত এপ্রিল মাসে ডাক মারফত পাঠিয়ে দিয়েছিলেন ওয়াশিংটন ডিসি-তে নাসা’র সদর দপ্তরে। তবে বেশ কিছুদিন পরও কোনও উত্তর না আসাতে ছবি এবং চিঠি দিয়ে নাসা’র ট্যুইটার পেজে ট্যুইট করেন তিনি। দ্রুত উত্তর পাবেন এমন কোনও আশা ছিল না তার।

হঠাৎ করেই একদিন সেই ট্যুইটে নজর পড়েনাসা’র জেট প্রপালশন বিশেষজ্ঞের। তিনি উত্তর দেন, ‘ভেবো না তুমি… আমি দেখছি কী করতে পারি তোমার জন্য। ’

ইদ্রিসের ওই চিঠির উত্তরে নাসা’ জেট প্রপালশন ল্যাবোরেটরির সিস্টেম ইঞ্জিনিয়ার কেভিন ডে’ব্রুয়িন বলেছেন, ‘ভবিষ্যতের এক মহাকাশচারীকে যেনো দেখতে পাচ্ছি, যে রকেট চালাতেও পারবে। তোমার মতো যাদের স্বপ্ন, তাদেরকে উৎসাহ দেওয়া আমাদের কর্তব্য। এই স্বপ্ন সত্যি করতে হলে নিজের ১১০ শতাংশ উজার করে দাও। আমরা এখানে তোমার মতো উজ্জ্বল তারকাদের জন্যই অপেক্ষা করি, যাদের মহাকাশ সম্পর্কে জানার আগ্রহ অনন্ত বেশি। ’

শুধু ইদ্রিসই নয়, তার ভাই ৭ বছরের ইসাও রকেট তৈরির কাজে লেগে পড়েছে। তার বানানো রকেটের ডিজাইনও পাঠানো হয়েছে আমেরিকা ও ইউরোপের বিভিন্ন স্পেস এজেন্সিতে। এতো ক্ষুদ্র বয়সে রকেট বানানো ও ভ্রমণে আগ্রহ হওয়া সত্যিই এক অনবদ্য চিন্তা-ভাবনা বলেই ধরা হচ্ছে।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...