যে অ্যাপগুলো কখনও মোবাইলে রাখা উচিত নয়

স্মার্টফোনে অ্যাপ চালানোর সময় বিরক্তিকর নানা বিজ্ঞাপন বন্ধ করতে গেলেও তা বন্ধ হয় না

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ আমরা স্মার্টফোনে বিভিন্ন অ্যাপ ব্যবহার করি। এসব অ্যাপের মধ্যে কিছু কিছু অ্যাপ আমাদের উপকারে আসে। তবে কিছু কিছু অ্যাপ মোইলের ক্ষতি করতে পারে। যে অ্যাপগুলো কখনও মোবাইলে রাখা উচিত নয় সেগুলো আজ জেনে রাখুন।

অনেক সময় দেখা যায়, স্মার্টফোনে অ্যাপ চালানোর সময় বিরক্তিকর নানা বিজ্ঞাপন বন্ধ করতে গেলেও তা বন্ধ হয় না। সম্ভবত আপনার অজান্তেই আপনার স্মার্টফোনে ক্ষতিকর অ্যাডওয়্যার প্রোগ্রাম ইনস্টল হয়ে গেছে। গুগল প্লেস্টোরে এই ধরনের বেশ কিছু ক্ষতিকর অ্যাপ রয়েছে। ইসরায়েলের সাইবার নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠান চেক পয়েন্টের বিশেষজ্ঞরা ২২টি ফ্ল্যাশলাইট এবং বিভিন্ন কাজের অ্যাপকে অ্যাডওয়্যার হিসেবে তালিকাভুক্ত করেছেন।

গুগল প্লেস্টোরে থাকা অ্যাপগুলোকে লাইটসআউট হিসেবে বলছেন তারা। এগুলো ১৫ হতে ৭৫ লাখ বার পর্যন্ত ডাউনলোড হয়েছে। তালিকায় থাকা অ্যাপগুলো দ্রুত আনইনস্টল করার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

এ বিষয়ে চেক পয়েন্টের গবেষকরা বলেছেন, অ্যাপগুলোতে সন্দেহজনক স্ক্রিপ্ট রয়েছে, যা ব্যবহারকারীর সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে অবৈধভাবে বিজ্ঞাপন দেখায়। তাছাড়া অ্যাপ যাতে সহজে সরিয়ে ফেলা না যায়, সেজন্য আইকনও লুকানো থাকে।

ওইসব ক্ষতিকর অ্যাপগুলোর তালিকা দেখুন

গ্যাজেটস নাউ সূত্রের দেওয়া অ্যাপগুলো হলো- স্মার্ট সোয়াইপ, ফাইল ট্রান্সফার প্রো, রিয়েল টাইম বুস্টার, নেটওয়ার্ক গার্ড, ইনফোকাস টার্বো ৫, এলইডি ফ্ল্যাশলাইট, ফ্রি ওয়াইফাই প্রো, ভয়েস রেকর্ডার প্রো, কল রেকর্ডার প্রো, কল রেকর্ডার, সুপার ফ্লাশলাইট লাইট, রিয়েলটাইম ক্লিনার, ওয়ালপেপার এইচডি, কুল ফ্ল্যাশলাইট, ওয়াইফাই সিকিউরিটি মাস্টার, মাস্টার ওয়াইফাই কি, ফ্রি ওয়াইফাই কানেক্ট, কল রেকর্ডিং ম্যানেজার, ব্রাইটেস্ট এলইডি ফ্ল্যাশলাইট-অলমাইটি, ব্রাইটেস্ট ফ্ল্যাশলাইট, স্মার্ট ফ্রি ওয়াইফাই, ড. ক্লিন লাইট, ব্রাইটেস্ট এলইডি ফ্ল্যাশলাইট-প্রো।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...