মাশরুম হতে উৎপাদন হবে বিদ্যুৎ!

যুক্তরাষ্ট্রের বিজ্ঞানবিষয়ক সাময়িকী ন্যানো লেটার্স মাশরুম হতে বিদ্যুৎ উৎপাদনের কৌশল উদ্ভাবন-সংক্রান্ত একটি নিবন্ধ প্রকাশ করা হয়

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ অনেক কিছু থেকেই বিদ্যুৎ উৎপাদন হয়ে থাকে। সেটি গ্যাস দিয়ে হতে পারে, পানি দিয়ে হতে পারে, কয়লা বা পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র হতে পারে। তবে এবার মাশরুম হতে উৎপাদন হচ্ছে বিদ্যুৎ!

আমরা জানি বিদ্যুতের সংকট রয়েছে সব সময়। আর এসব সংকট হতে উত্তরণের জন্য আমরা বিভিন্নভাবে বিদ্যুৎ উৎপাদনের পথ বেছে নেই। যেমন কয়লাভিত্তিক উৎপাদন কেন্দ্র, পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র। তবে এবার সুখবর অপেক্ষা করছে বিশ্ববাসীর জন্য। এবার মাশরুম হতে বিদ্যুৎ উৎপাদন শুরু হয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। এমনটিই অপেক্ষা করছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একদল বিজ্ঞানী।

যুক্তরাষ্ট্রের বিজ্ঞানবিষয়ক সাময়িকী ন্যানো লেটার্স মাশরুম হতে বিদ্যুৎ উৎপাদনের কৌশল উদ্ভাবন-সংক্রান্ত একটি নিবন্ধ প্রকাশ করা হয়। এতে বলা হয়েছে যে, মাশরুম হতে তৈরি বিদ্যুৎ জলবায়ুর পরিবর্তন মোকাবেলায় সক্ষম হবে।

মাশরুম হতে তৈরি বিদ্যুৎ উৎপাদনের এই পদ্ধতিটি উদ্ভাবন করেছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্টিভেনস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির গবেষকরা।

গবেষকরা বলেছেন, গবেষণার সময় গবেষকরা মাশরুমের ওপর থ্রি-ডি প্রিন্টিংয়ের মাধ্যমে একগুচ্ছ শক্তি উৎপাদনকারী সায়ানোব্যাকটেরিয়া বসিয়ে দিয়ে থাকেন।

তারপর ছত্রাকের তৈরি করা আদর্শ পরিবেশে সায়ানোব্যাকটেরিয়াগুলো স্বল্প পরিমাণে বিদ্যুৎ উৎপাদন করেছে। মূলত গবেষকরা যে সায়ানোব্যাকটেরিয়া গবেষণায় কাজে লাগিয়েছেন, তা ফটোসিনথেসিস প্রক্রিয়ায় এটি সূর্যরশ্মিকে বিদ্যুতে রূপান্তরিত করতে পারে। এভাবেই গবেষকরা মাশরুম হতে বিদ্যুৎ উৎপাদনের পথ বাতলে দিয়েছেন। ভবিষ্যতে মাশরুম হতে উৎপাদিত বিদ্যুৎ মানব সভ্যতায় কাজে আসবে বলে মনে করা হচ্ছে।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...