The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

কাশ্মীরে বিশেষ পায়রাটি কী ‘পাক চর’!

সীমান্তপার থেকে গুপ্তচরবৃত্তির কাজে লাগানো হয়েছে বলেও ধারণা করা হচ্ছে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ পাকিস্তান সীমান্তের কাঠুয়া এলাকায় সন্দেহজনক একটি পায়রা সম্প্রতি ধরা পড়েছে। তার পায়ে একটি নম্বর দেওয়া গোল দাগও রয়েছে। পরে পায়রাটিকে নিরাপত্তা কর্মীদের কাছে তুলে দেওয়া হয়।

কাশ্মীরে বিশেষ পায়রাটি কী ‘পাক চর’! 1

জম্মু এবং কাশ্মীর এলাকায় গুপ্তচর ধরা পড়া কোনও নতুন ঘটনা নয়, তবে কাঠুয়ার হিরানগর থানার পুলিশের হাতে ধরা পড়ে একটি পায়রা (কবুতর)। পায়রাটির পায়ে একটি গোলাপি রং এর কাপড়ের টুকরো ও ট্যাগও রয়েছে, তাকে ‘সন্দেহভাজন পাক চর’ বলেই থানায় নেওয়া হয়।

তাকে সীমান্তপার থেকে গুপ্তচরবৃত্তির কাজে লাগানো হয়েছে বলেও ধারণা করা হচ্ছে। সন্দেহভাজন ওই পায়রাটিকে উঁচুতে খাঁচা করে নিরাপদে রাখা হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, রবিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে আন্তর্জাতিক সীমান্ত লাগোয়া চাড়ওয়াল জেলার গীতাদেবীর বাড়িতে উড়ে আসে এই পায়রাটি। তিনিই পায়রাটিকে প্রথমে ধরেন। পরে তিনি পায়রাটির পায়ে একটি গোলাকার রিং দেখতে পান। রিং এর ওপরে একটি ফোন নম্বরও রয়েছে।

পরে গ্রামপ্রধান পায়রাটিকে সীমান্তরক্ষী বাহিনীর হাতে তুলে দেওয়া হয়, পরে তাকে স্থানীয় হিরানগর থানার পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হযেছে বলে জানান ওই পুলিশ কর্মকর্তা। এ পর্যন্ত পায়রাটির মধ্যে অস্বাভাবিক কিছু দেখতে পাওয়া যায়নি, তবে বিষয়টি খতিয়ে দেখছে জম্মুর পুলিশ বাহিনীর বিশেষ শাখা।

কাঠুয়ার পদস্থ পুলিশ কর্মকর্তা শৈলেন্দ্র মিশ্র এনডিটিভি বলেছেন, আমরা বলতে পারবো না যে এটা গুপ্তচরের কাজে লাগানো হয়। স্থানীয়রা এর পায়ে একটি টুকরো দেখতে পেয়েছেন এবং পায়রাটিকে তারা ধরেন। কয়েকজন সেটিকে কোড বার্তাও বলেছেন। পাকিস্তানের পাঞ্জাবে মালিকানার জন্য পায়রার পায়ে কাপড়ের টুকরো বেঁধে রাখা হয়ে থাকে।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...