The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

এবার আসছে জীবাণু প্রতিরোধক স্মার্টফোন!

এই স্মার্টফোনটিতে থাকছে ৪ হাজার ২০০ মিলিঅ্যাম্পহার্জের ব্যাটারি, ওয়াটার এবং ডাস্ট প্রুফ, ওয়াটার প্রুফ ১ দশমিক ৫ মিটার পানিতে প্রায় ৩৫ মিনিট পর্যন্ত

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ বিশ্বের এই প্রথমবারের মতো জীবাণু প্রতিরোধক স্মার্টফোন ‘ক্যাট এস৪২’ নিয়ে আসতে চলেছে রিডিং ভিত্তিক সংস্থা বুলিট। এই স্মার্টফোনটিতে ব্যবহৃত সিলভার আয়ন ২৪ ঘণ্টায় ৯৯ দশমিক ৯ শতাংশ জীবাণুর বিস্তার রোধ করতে সক্ষম!

এবার আসছে জীবাণু প্রতিরোধক স্মার্টফোন! 1

এই সেটের উপাদানগুলিতে ব্যবহার করা হয়েছে অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল টেকনোলজি। এই স্মার্টফোনটি অসমতল, টেকসই ও সম্পূর্ণ ওয়াটারপ্রুফ। এই প্রযুক্তিটি ব্যাকটেরিয়ার বিস্তার রোধ করলেও জীবাণুকে সরাসরি ধ্বংস করতে পারে না।

বিশ্বের প্রথম অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল স্মার্টফোন যা কিনা জীবাণু ছড়িয়ে দেওয়া বন্ধ করে দেয়। এটি বুলিট নামে একটি রিডিং-ভিত্তিক সংস্থা তৈরি করেছে। ফার্মটি এমনভাবে এন্ট্রি-লেভেল ডিভাইস তৈরি করেছে যা অত্যন্ত শক্ত এবং টেকসই ও এটি বহুমূখীভাবে নির্মিত। এই স্মার্টফোনটি বায়োমাস্টার অ্যান্টিমাইক্রেবায়াল প্রযুক্তিতে সজ্জিত হয়ে আগামী বছরের বসন্তকালে বিশ্ব বাজারে পাওয়া যাবে বলে জানানো হয়েছে। বাংলাদেশী টাকায় এর দাম পড়বে প্রায় ২৬ হাজার টাকার মতো।

এই স্মার্টফোনটিতে থাকছে ৪ হাজার ২০০ মিলিঅ্যাম্পহার্জের ব্যাটারি, ওয়াটার এবং ডাস্ট প্রুফ, ওয়াটার প্রুফ ১ দশমিক ৫ মিটার পানিতে প্রায় ৩৫ মিনিট পর্যন্ত। অ্যান্ড্রয়েড ১০ যা ১১ পর্যন্ত বর্ধিত হবে। ৩ জিবি র‌্যাম, ৩২ জিবি রমের সঙ্গে আরও থাকছে বর্ধিত স্টোরেজ। তাছাড়াও থাকছে ২ বছরের ওয়ারেন্টির সুবিধাও।

প্রতিষ্ঠানটি আরও বলছে যে, ২০২২ সালের দিকে অন্যান্য ক্যাট ফোনেও অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল বৈশিষ্ট্য আনা হবে যেখানে যুক্ত করা হবে থার্মাল ইমেজিং স্লিমলাইন এবং ফ্লাগশিপ এস৬২। স্মার্টফোনটির দাম পড়বে প্রায় ৪৩ হাজার টাকার মতো।

তথ্যসূত্র : ডেইলি মেইল

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...