The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

আপনার কম্পিউটারের গতি বাড়াতে ৮টি ফ্রি আপগ্রেড! [টিউটোরিয়াল]

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ খুব বেশি ব্যবহারের ফলে আপনার কম্পিউটারে নানান জটিলতা তৈরি হতে পারে, আপনার কম্পিউটার হয়ে পড়ে ধীর গতির। আমরা আজ কম্পিউটারের গতি বাড়াতে ১০টি বিশেষ পরিচর্যা টিপস এর বিষয়ে জানবো।


original

কম্পিউটারে কাজ শেষে যখন একটু সময় পাবেন তখনি নিচের পদ্ধতি সমূহ অনুসরণ করে আপনার কম্পিউটারকে করে নিন দ্রুত গতির এবং কম্পিউটারের কর্মক্ষমতাও বাড়িয়ে নিন বহুগুণে।

১) হার্ডওয়্যার পরিষ্কার রাখুন

Step-5-Ground-yourself_thumb

দীর্ঘদিন আপনার কম্পিউটার ব্যবহারের ফলে এতে নানান ময়লা ধুলাবালি জমে যায়, এতে করে কম্পিউটারের হার্ডওয়ার ঠিকভাবে পরিপূর্ণ কাজ দিতে পারেনা। এটা পরিষ্কার রাখা জরুরী। বাজারে নানান ব্র্যান্ডের ল্যাপটপ, ডেক্সটপ পরিষ্কারের ক্লিনার বা ম্যাজিক সল্যুশন পাওয়া যায়। তবে কম্পিউটারের হার্ডওয়্যার পরিষ্কারের ক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই মনে রাখতে হবে, সব কিছু ধীরে এবং হাল্কা ভাবে করতে হবে।

২) ডিসপ্লে সেলিব্রেশান

xp_desolate

আপনি যদি কম্পিউটার কেনার পর থেকে আপনার মনিটরের সেলিব্রেশান না করে থাকেন তবে অবশ্যই এখনই এটি সেলিব্রেশান করে নিন। ডিসপ্লে সেলিব্রেশান করার মাধ্যমে আপনার মনিটরে কালার আগের চেয়ে আরও সুন্দর হবে।

৩) অব্যবহৃত কী বোর্ড কী ব্যবহার

17vl3mxfigvd6jpg

দীর্ঘদিন একই কী বোর্ড ব্যবহার করছেন? আপনি কি খেয়াল করেছেন আপনার কী বোর্ডে এমন কিছু কী রয়েছে যা আপনি ঠিক ব্যবহার করেন না, কিংবা ব্যবহারের তেমন প্রয়োজন হয়না! ঐ সব অব্যবহারিত কী সমূহ মাঝে মাঝে টিপুন, এতে কীবোর্ড কাজ করবে আরও স্মুথ ভাবে।

৪) স্পীকার সেটাপ ঠিক করে নিন

PSB-PM1

হয়তো আমাদের অনেকের পক্ষে কেবল কম্পিউটারে গান শুনার জন্য আলাদা করে অনেক অর্থ ব্যয় করে সাউন্ড সিস্টেম কিনে নেয়ার সাধ্য নেই। ফলে ভালো গান শুনতে হলে আমাদের উচিৎ স্পীকার সেটাপ করে নেয়া। আপনি যদি আপনার কম্পিউটারের অডিও সেটাপ এ যান তবে দেখতে পাবেন সেখানে বিভিন্ন সাউন্ড ইউকুয়েলাইজেশান রয়েছে। আপনি সেখান থেকে আপনার ইচ্ছে মত বিট নির্ধারণ করে দিতে পারেন, একই সাথে আপনার যদি সাবুফার থাকে তাহলে তো কথাই নেই। ব্যাজ বাড়িয়ে দিয়ে গানের সাউন্ড নিজের ইচ্ছে মত নির্ধারণ করতে পারবেন। তো আর দেরি কেনো এখনই করে নিন। এছাড়া আমাদের অনেকের স্পীকারে দীর্ঘদিন পড়ে থাকার কারণে ধুলাবালি জমে যায় যা স্পীকারের গানের কোয়ালিটি নষ্ট করে। ফলে আপনার উচিৎ মাসে অন্তত এক দিন আপনার কম্পিউটারের সাবুফার সহ দুটি স্পীকার পরিষ্কার করে। এক্ষেত্রে লম্বা ব্রাশ ব্যবহার করতে পারেন।

৫) কম্পিউটারের তারের যত্ন

upgradepc

আপনার কম্পিউটারের এক একটি তার আমাদের শরীরের এক একটি শিরা উপশিরার মতোই। যদি এসব তারের কোনটির ক্ষতি হয় বা দুর্বল হয়ে যায় তবে পাওয়ার সাপ্লাই ধীর হবে। এক্ষেত্রে কম্পিউটার ঠিকভাবে কাজ করবেনা। আমাদের উচিৎ নিয়মিত কম্পিউটারের তার সমূহের দেখভাল করা। নিয়ম করে তার সমূহের খুঁটিনাটি দেখে প্রয়োজনীয় তারের স্থানান্তর করা।

এছাড়া অনেকের কম্পিউটারে ইন্টারনেট সংযোগ নেয়া হয় ব্রড ব্রেন্ড থেকে, এক্ষেত্রে ব্রড ব্রেন্ড ক্যাবল ঠিক ভাবে কাজ করছে কিনা দেখা নেয়া জরুরী। অনেকেই দীর্ঘদিন একই ভাবে তার ফেলে রাখেন এবং সেভাবেই ব্যবহার করতে থাকেন। এতে তারের উপর নানান ঝামেলা যায় ফলে তার দুর্বল হয়ে যায়। তার যদি দুর্বল হয় সে অবশ্যই তার পরিপূর্ণ কর্মক্ষমতা দিতে পারবেনা। সুতরাং দেখে বুঝে পুরনো তার পরিবর্তন করুন, সঠিক যত্ন নিন।

৬) কম্পিউটারের কুলিং পাখা

ku-xlarge (1)

আমাদের কম্পিউটারের বিভিন্ন যন্ত্রাংশ চলার সময় গরম হয়ে যায়, ফলে এক্ষেত্রে এদের ঠাণ্ডা রাখা জরুরী। ফলে সব সময় কম্পিউটারের কুলিং পাখা সমূহ সঠিক ভাবে চলছে কিনা দেখা উচিৎ। অনেক সময় কম্পিউটারের পাখা সমূহ চলার সময় অযাচিত শব্দ করে। শব্দ হয় বিশেষ করে পাখায় ময়লা জমলে। ফলে মাসে একবার কম্পিউটারের পাখা সমূহে জমা ধুলাবালি পরিষ্কার করুন। এতে কম্পিউটার চলবে আরও সুন্দর ভাবে, অযাচিত শব্দ হবেনা মেশিন থাকবে শীতল।

৭) প্রসেসর হার্ডড্রাইভ ইত্যাদি

18ix68rlxbkwtjpg

প্রসেসর হার্ডড্রাইভ ইত্যাদি হচ্ছে কম্পিউটারের প্রধান প্রান কেন্দ্র, এসবে এখটু হের ফের মানে আপনার কম্পিউটারের সমস্যা আসন্ন। অতএব, সব সময় খেয়াল রাখেব প্রসেসর বেশি গরম হচ্ছে কিনা কিংবা হার্ডড্রাইভ চলার সময় বাড়তি শব্দ হচ্ছে কিনা। যদি এমন আলামত দেখেন তবে দ্রুত ব্যবস্থা নিন। এ ছাড়া কম্পিউটারের র‍্যাম স্লট যদি নড়ে যায় তবে কম্পিউটারের গতি ধীর হয়ে যাওয়া সহ কম্পিউটার চালু হবেনা। এক্ষেত্রে আপনি র‍্যাম টা খুলে নিয়ে একটি ইরেজার দিয়ে র‍্যামের চকচকে সার্কিট অংশ ধীরে মুছে দিয়ে আবার লাগিয়ে দিন, ভালো কাজে দেবে।

৮) ভালো মানের সফটওয়্যার ব্যবহার

1382976215

আমাদের কম্পিউটার সফটওয়্যার ছাড়া চলবেনা। অনেকেই ফ্রি সফটওয়্যার নেন কিংবা বিভিন্ন নিন্ম-মানের সফটওয়্যার ব্যবহার করেন। এতে আপনার কম্পিউটারের ক্ষতি হতে পারে। একই সাথে নিন্মমানের সফটওয়্যার আপনার কম্পিউটারকে ধীর করে দেয়। ফলে সব সময় জেনে বুঝে দেখে শুনে ভালো মানের সফটওয়্যার ব্যবহার করুন।

আজ এটুকুই, উপরের সকল ধাপ অনুসরণ করুন, নিয়মিত কম্পিউটারের যত্ন নিন। সামনে আরও টিউটোরিয়ালের জন্য চোখ রাখুন দি ঢাকা টাইমসে

সূত্রঃ টাইমসঅবইন্ডিয়া

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...