The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

তথ্য প্রযুক্তির সংক্ষিপ্ত সংবাদ (২৬-১০-১২)

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ আধুনিক যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এগিয়ে চলেছে তথ্য প্রযুক্তির হাওয়া। তাইতো বর্তমান বিশ্বে তথ্য প্রযুক্তি ছাড়া ভাবাই যায় না। আজ তথ্য প্রযুক্তির সংক্ষিপ্ত সংবাদ (২৬-১০-১২) এ বিশ্বের বেশ কিছু তথ্য প্রযুক্তির খবর তুলে ধরা হলো।
তথ্য প্রযুক্তির সংক্ষিপ্ত সংবাদ (২৬-১০-১২) 1
দৃষ্টিশক্তি নষ্ট করছে ট্যাবলেট ও স্মার্টফোন!

ট্যাবলেট ও স্মার্টফোনের এখন যেন কোন বিকল্প নেই। তবে প্রিয় এ ডিভাইসগুলো একনাগাড়ে ব্যবহার করার ফলে দৃষ্টিশক্তি নষ্ট হয়। ব্যবহারকারীদের অনেকেই এখন চোখের ডাক্তারের কাছে ধরনা দিচ্ছে। এদের মধ্যে কিশোররাই বেশি।

অ্যাসোসিয়েটেড চেম্বার্স অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি অব ইন্ডিয়ার এক গবেষণা অনুযায়ী, ভারতের শহরগুলোর ৮৮ শতাংশ কিশোর সেলফোন ব্যবহার করে। এদের বয়স ১৫-১৮ বছরের মধ্যে। ১৩-১৫ বছর বয়সীদের ৪০ শতাংশ সেলফোন ব্যবহার করে। ৯০ শতাংশ বাবা-মা সন্তানদের হাতে সেলফোন তুলে দিয়েছেন। পেশাজীবন নিয়ে ব্যস্ত থাকায় সন্তানদের সঙ্গে মুখোমুখি যোগাযোগ তাদের হয় না। এ কারণে নিয়মিত যোগাযোগ রাখতে তারা সন্তানদের হাতে সেলফোন তুলে দিয়েছেন। অতিমাত্রায় মোবাইল অ্যাপ ব্যবহার করার কারণে অনেক কিশোর চোখের দীর্ঘস্থায়ী ক্ষতির শিকার হচ্ছে বলে ডাক্তাররা অভিযোগ করেন। এ ধরনের সমস্যা থেকে বাঁচতে চাইলে প্রতি ২০ মিনিট পরপর ২০ সেকেন্ডের জন্য ২০ ফুট দূরত্বের কোন কিছুর দিকে তাকানোর পরামর্শ তারা দিয়েছেন।

এছাড়া ট্যাবলেট, স্মার্টফোন ও নোটবুক অনেকক্ষণ ধরে ব্যবহার করতে মানা করেছেন তারা। যদি এগুলো ব্যবহার করতেই হয়, তাহলে চোখ থেকে এগুলোর দূরত্ব অন্তত ৫০ সেন্টিমিটার রাখা উচিত। এসজিআরএইচের আরেক চক্ষু বিশেষজ্ঞ ডক্টর টিংকু বলেন, নিকটবর্তী কোনো বস্তু দেখার সময় আমাদের চোখে বেশি চাপ পড়ে। চোখের পেশি বেশি সংকুচিত হয় তখন। বেশিক্ষণ একনাগাড়ে কাছের কোন কিছুর দিকে তাকিয়ে থাকলে চোখের ক্ষতি হয়। এ ধরনের রোগীদের আমরা চোখের ব্যায়াম দিই। এর মধ্যে রয়েছে দূরবর্তী বস্তুর দিকে তাকিয়ে থাকা, সব দিকে চোখ ঘুরানো ইত্যাদি। দিল্লির স্যার গঙ্গারাম হাসপাতালে (এসজিআরএইচ) ১১ বছর বয়সী এক রোগী অতিরিক্ত মাত্রায় ট্যাবলেট ব্যবহারের কারণে মায়োপিয়ার শিকার হন।

অতিমাত্রায় ডিভাইস ব্যবহারের ফলে সে এখন ক্ষীণ দৃষ্টিসম্পন্ন, যাকে চিকিৎসা বিজ্ঞানের ভাষায় মায়োপিয়া বলা হয়। সারাক্ষণ ট্যাবলেটে গেমস নিয়ে ছেলেটি ব্যস্ত থাকত বলে তার বাবা-মার কাছ থেকে জানা গেছে। হাসপাতালটির সিনিয়র কনসালটেন্ট আই সার্জন ডক্টর হরবংশ লাল তার রোগী প্রসঙ্গে বলেন, ছেলেটির পাঠ্যবই পড়তে সমস্যা না হলেও ব্ল্যাকবোর্ডের লেখা পড়তে তার সমস্যা হয় প্রচুর। পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে ছেলেটির দৃষ্টিশক্তি স্বাভাবিক প্রমাণিত হলেও ফোকাসিংয়ের জন্য গুরুত্বপূর্ণ সিলিয়ারি পেশিগুলো সংকুচিত অবস্থায় দেখা গেছে। ছেলেটিকে মাইনাস পাওয়ারের চশমা দেয়া হলেও তা কাজে দেয়নি।

আগামী মাসেই চীনে অ্যাপলের নতুন স্টোর

অ্যাপল এবার চীনে নতুন দুটি স্টোর চালু করবে। সম্প্রতি একটি স্টোর চালু করা হয়েছে। অন্যটি আগামী মাসেই চালু করা হবে বলে জানিয়েছে অ্যাপল। ২০১০ সালে অ্যাপলের খুচরা বিভাগের তৎকালীন প্রধান রন জনসন চীনে ২৫টি অ্যাপল স্টোর চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। এ বছরের শেষ দিকে চীনে সব মিলিয়ে অ্যাপলের নয়টি নতুন স্টোর চালু করা হবে। শেনঝেন ও বেইজিং ছাড়াও সাংহাইয়ের তিনটি অ্যাপল স্টোর এবং হংকংয়ের দুটি অ্যাপল স্টোর এর অন্তর্ভুক্ত। এর আগে গত মাসে নিউইয়র্কের তোপেকা ক্যাপিটাল মার্কেটসের বিশ্লেষক ব্রায়ান হোয়াইট চীন ভ্রমণ করেছেন। ১৪ অক্টোবর তিনি এক প্রতিবেদনে লেখেন, ১৫-২০ বছরের মধ্যে চীনে অ্যাপলের আরও ৪০০-৫০০টি স্টোর খোলার সুযোগ রয়েছে। আইফোন ও ম্যাকবুক বিক্রি বাড়ানোর চেষ্টা করছে অ্যাপল। প্রতিষ্ঠানটির চীনা ভাষার ওয়েবসাইটে একটি পোস্টিং থেকে জানা গেছে এ তথ্য। ২০ অক্টোবর বেইজিংয়ের ওয়াংফুজিংয়ে অ্যাপল স্টোর চালু করা হয়। এ ছাড়া সামনেই শেনঝেনে আরেকটি অ্যাপল স্টোর চালু করা হবে। একই শহরে ফক্সকন টেকনোলজি গ্রুপ আইফোন ও আইপ্যাডের জন্য যন্ত্রাংশ তৈরি করে থাকে। ফোন ইন্টারভিউয়ে অ্যাপলের মুখপাত্র ক্যারোলিনও এ কথা বলেন। তবে কবে থেকে শেনঝেনের স্টোরটি চালু থাকবে, তা নিয়ে ক্যারোলিনও কিছু বলেননি। গত মার্চে অ্যাপলের প্রধান নির্বাহী টিম কুক চীন সফর করেন। সে সময় তিনি চীনে অ্যাপল বিনিয়োগের পরিমাণ বাড়াবে বলে ঘোষণা দিয়েছিলেন। এর সূত্র ধরেই চীনে অ্যাপলের নতুন স্টোর চালু করা হল।

লেনোভো আনল ল্যাপটপ ট্যাবলেট

চীনা কম্পিউটার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান লেনোভো সম্প্রতি বাজারে ল্যাপটপ ও ট্যাবলেট মিলিয়ে নতুন এক ডিভাইস ল্যাপটপ ট্যাবলেট নিয়ে এসেছে। ব্যবসায়ী ও সাধারণ ভোক্তা সবার জন্যই ডিভাইসটি আকর্ষণীয় হবে বলে আশা করছে প্রতিষ্ঠানটি। লেনোভোর পণ্য বিভাগের প্রেসিডেন্ট পিটার হরটেনসিয়াস বলেন, আমরা মনে করি এ নতুন আবিষ্কার টাচস্ক্রিন ব্যবহারের আসল আনন্দ এনে দেবে। একই সঙ্গে দুই ধরনের ডিভাইস ব্যবহারের কার্যক্ষমতা ব্যবহারকারীকে কম্পিউটার ব্যবহার থেকেও বেশি কিছুর সুযোগ দেবে। লেনেভোর নতুন ডিভাইসটি চলতি মাসেই বাজারে ছাড়া হবে। দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ৫৪৯ ডলার থেকে ১ হাজার ৯৯ ডলারের মধ্যে। ডিভাইসটিতে রয়েছে ১২ দশমিক ৫ ইঞ্চি স্ক্রিন, তৃতীয় প্রজন্মের ইন্টেল কোর আই৭ প্রসেসর। এ ছাড়া তথ্য ধারণক্ষমতা হবে ১২৮ থেকে ৫০০ গিগাবাইট। প্রতিষ্ঠানটি এ মাসে থিঙ্কপ্যাড ট্যাবলেট ২ বাজারে আনার পরিকল্পনা করছে। ডিভাইসটি পরিচালিত হবে উইন্ডোজ ৮ অথবা উইন্ডোজ আরটি দিয়ে। গতানুগতিক ধারার কম্পিউটারের ধারায় পরির্বতন আনতেই এধরনের ডিভাইস আনা হচ্ছে।

ইন্টারনেট ও মোবাইল বিজ্ঞাপনে যুক্তরাজ্যের আয় ৪১৫ কোটি ডলার

যুক্তরাজ্য ইন্টারনেট এবং মোবাইল বিজ্ঞাপন থেকে চলতি বছরের প্রথমার্ধে রেকর্ড ৪১৫ কোটি ডলার আয় করেছে। দেশটির গবেষণা সংস্থা পিডব্লিউসি এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানায়।
গবেষণা এবং পরিকল্পনা ব্যবস্থাপক টিম এলকিংটন বলেন, ডিজিটাল প্রযুক্তি এবং সেবা ভোক্তার জীবনযাত্রা অনেক সহজ করে দিয়েছে। বেশি ইন্টারনেট ব্যবহারে বেশি সেবা ও বিনোদন। বিজ্ঞাপনদাতারা এ সুবিধাকে কাজে লাগাচ্ছে বললে ভুল হবে না। যুক্তরাজ্যের ইন্টারনেট বিজ্ঞাপন সংস্থা এবং পিডব্লিউসির গবেষণা প্রতিবেদনে দেখা যায়, মোবাইলে বিনোদন, সামাজিক মাধ্যম এবং ইন্টারনেট ব্যবহারে যুক্তরাজ্যে বিজ্ঞাপন খাতে আয় বৃদ্ধি পাচ্ছে।

স্মার্টফোনে বড় আকারের স্ক্রিনে তথ্য অনুসন্ধান ও বিনোদন মাধ্যম ব্যবহার সহজ এবং আনন্দদায়ক হওয়ায় বর্তমানে ব্যবহারকারীদের কাছে মাধ্যমটির জনপ্রিয়তা বাড়ছে। এ খাতে ব্যবহারকারী বাড়ায় মাধ্যমটি থেকে আয়ও বাড়ছে।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...