The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

হরতালের কবলে পড়া জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা পেছানোর সিদ্ধান্ত এখনও হয়নি

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ জামায়াতে ইসলামীর ডাকা ৭২ ঘণ্টার হরতালের কবলে পড়া জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা পেছানোর সিদ্ধান্ত এখনও হয়নি। আগামী ২ নভেম্বর থেকে শুরু হওয়ার কথা এই পরীক্ষা।

JSC-JDC exam & Hartal

জামায়াতে ইসলামীর আমির মতিউর রহমান নিজামীর ফাঁসির প্রতিবাদে ডাকা ৩ দিনের ৭২ ঘণ্টার হরতালের কারণে আগামী ২ নভেম্বর থেকে শুরু হতে যাওয়া জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষা পেছানোর কোনো সিদ্ধান্ত গতকাল পর্যন্ত হয়নি। তবে আজ সিদ্ধান্ত হতে পারে। হরতালের কারণে জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষার অনিশ্চিয়তা দেখা দিয়েছে। অভিভাবক ও শিক্ষার্থীরা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন।

সচিবালয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেটের (জেডিসি) পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠানের বিষয়ে আন্তঃমন্ত্রণালয় প্রস্তুতি সভায় শিক্ষামন্ত্রী সাংবাদিকদের জানান, এখন পর্যন্ত পরীক্ষা পেছানোর বিষয়ে কোনো সিদ্বান্ত হয়নি। পরবর্তী সময়ে পরীক্ষা পেছানো বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হলে জানানো হবে। পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে এবং প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধে একটি পর্যালোচনা কমিটি গঠন করা হয়েছে বলেও জানান শিক্ষামন্ত্রী।

মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় জামায়াতে ইসলামীর আমির মতিউর রহমান নিজামীর ফাঁসির আদেশের প্রতিবাদে আজ বৃহস্পতি, আগামী রবি ও সোমবার দেশব্যাপী হরতাল ডেকেছে জামায়াতে ইসলামী।

জানা গেছে, এ বছর সারাদেশে অষ্টম শ্রেণীর ২০ লাখ ৯০ হাজার ৬৯২ জন শিক্ষার্থী এই পরীক্ষায় অংশ নেবে বলে আশা করা হচ্ছে। ২০১০ সাল হতে সারাদেশে অষ্টম শ্রেণীর শিক্ষার্থীরা একসঙ্গে জেএসসি পরীক্ষা দিয়ে আসছে। অপরদিকে ২০১১ সাল হতে শুরু হয়েছে জেডিসি পরীক্ষা।

উল্লেখ্য, গত বছরও হরতালের কারণে জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষা ৪ নভেম্বরের স্থলে ৭ নভেম্বর শুরু হয়। এ বছর দেশে হরতাল ধর্মঘট না থাকায় সবাই আশংকামুক্ত ছিলেন সন্তানদের নিয়ে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তা আর হলো না।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...