এন্ড্রয়েড ডিভাইসের ব্যাটারি ক্ষমতা বাড়াতে করুন ক্যালিব্রেশন!

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ আমাদের এন্ড্রয়েড ডিভাইসের ব্যাটারি নিয়ে দুশ্চিন্তা একটু বেশি করতে হয়। তবে এর থেকেও চিন্তার বিষয় হচ্ছে অনেক ক্ষেত্রে অনেক ব্যবহারকারীর এন্ড্রয়েড ফোনে চার্জ খুব কম থাকে। এটি ব্যাটারি নষ্ট না হলেও ডিভাইসের সিস্টেম ত্রুটির কারোনেও হতে পারে। আজ আমরা দেখবো কিভাবে এই ত্রুটি দুর করা যায়।


how-to-improve-iPhone-battery-life-tips

এন্ড্রয়েড ফোনে যাদের চার্জ কম থাকে কিংবা হুট করে ২০% থেকে চার্জ কমে ০% হয়ে যায় এমন সমস্যায় ভুগছেন তারা ব্যাটারি ক্যালিব্রেশন করে নিতে পারেন। মূলত আমাদের ফোনের বিশেষ স্মার্ট সেন্সর থাকে যা নিয়ন্ত্রণ করে ব্যাটারি, এর সাহায্য ব্যাটারির চার্জ কতটুকু আছে তা আপনাকে দেখায় ব্যাটারি। কিন্তু এই প্রোগ্রামে যদি কোনও ত্রুটি থাকে তবে ডিভাইস আপনাকে সঠিক পরিসংখ্যান দেখাবেনা। এক্ষেত্রে আপনাকে ব্যাটারি ক্ষমতা বাড়াতে ক্যালিব্রেশন করে নিতে হবে।

রুট করা সেটের ক্ষেত্রে বিভিন্ন আপ্লিকেশান দিয়ে আপনি ব্যাটারি ক্ষমতা বাড়াতে ক্যালিব্রেশন করে নিতে পারেন কিংবা সেট যদি রুট করা না থাকে তবে আপনার পক্ষে ক্যালিব্রেশন করতে কিছুটা সমস্যা হবে কিন্তু তাও সম্ভব। আমরা আগে দেখবো রুট ডিভাইসে কিভাবে ব্যাটারি ক্যালিব্রেশন করবেন।



প্রথমে গুগল প্লে স্টোর থেকে এই Battery Calibration অ্যাপ নামিয়ে নিন, লিঙ্ক

unnamed

এবার অ্যাপটি ইন্সটল শেষে আপনাকে ডিভাইসের চার্জ এক টানা ১০০% করে নিতে হবে। ডিভাইসের চার্জ ১০০% দেখালে অ্যাপটি চালু করুন। অ্যাপটি চালু করলে অ্যাপ সুপার ইউজার অনুমতি চাইবে। দিয়ে দিন। এবার অ্যাপটি চালু অবস্থায় ব্যাটারি লেভেল ফুল (১০০%) আছে কিনা দেখুন। যদি ১০০% থাকে তবে “Calibrate / Battery Calibration” অপশনে ক্লিক করুন। এবার সেট বন্ধ করুন এবং চার্জে লাগান। চার্জ লাগানো অবস্থায় ১০০% হলে ১ ঘন্টা রেখে দিন চার্জে দিয়েই। এর পর সেট অন করুন। কাজ শেষ!

এবার আসি যাদের ডিভাইস রুতেড না তারা কি করবেন! হ্যা আপনার ডিভাইস রুট করা না থাকলেও আপনি চাইলেই ম্যানুয়ালি উপায়ে ক্যালিব্রেশন করতে পারেন। তবে এটা কিছুটা সময় সাপেক্ষ। নিচের ধাপ সমূহ অনুসরণ করুন।

১। ডিভাইস চালু করে (১০০%) হওয়া পর্যন্ত চার্জ দিন এবং ১০০% হলে টানা এক ঘণ্টা চার্জে সংযুক্ত রাখুন
২। এবার ডিভাইস চার্জার থেকে বিচ্ছিন্ন করে সাথে সাথে পাওয়ার অফ করে দিন
৩। আবার ডিভাইস বন্ধ অবস্থায় এক ঘণ্টা চার্জে সংযুক্ত রাখুন
৪। চার্জার যুক্ত অবস্থায় ডিভাইস পাওয়ার অন বা চালু করুন এবং আবার এক ঘণ্টা চার্জে সংযুক্ত রাখুন
৫। ডিভাইস চার্জার থেকে বিচ্ছিন্ন করে সাথে সাথে পাওয়ার অফ বা বন্ধ করুন পুনরায়, ডিভাইস বন্ধ অবস্থায় এক ঘণ্টা চার্জে সংযুক্ত রাখুন
৬। এখন ডিভাইস চার্জার থেকে বিচ্ছিন্ন করে সাধারন ভাবে ব্যাবহার করুন যতক্ষণ না ব্যাটারি সম্পূর্ণ শেষ হচ্ছে। চার্জ ০% হলে আবার এক টানা ১০০% চার্জ দিয়ে দিন।
৮। কাজ শেষ! এবার অপারেটিং সিস্টেম ডিভাইসের ব্যাটারির সম্পর্কে একটা ভালো ধারনা পাবে, ডিভাইসে প্রোগ্রাম সম্পর্কিত সমস্যা দুর হবে। হুট করে আর চার্জ ডাউন হয়ে যাবেনা।

এধরনের আরো অনেক পোস্ট পেতে আমাদের সাথে থাকুন এবং মন্তব্য করে জানান আপনার প্রয়োজনীয় কোন বিষয়ে জানতে চান।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন

মন্তব্য

Loading...