The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

এবার মহাকাশে হবে শেষকৃত্য!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ মানুষের যে কত রকম স্বাদ-আহ্লাদ থাকতে পারে বোঝা বড়ই মুশকিল। ব্যতিক্রমি এসব স্বাদ-আহ্লাদের প্রতিফলন ঘটাতে এক প্যাকেজ আসছে। আর সেই প্যাকেজে এবার মহাকাশে হবে শেষকৃত্য!

The funeral

মানুষের কাছে মহাকাশের রহস্য সর্বসময় রয়েছে। এই মহাকাশই আবার মানুষের কাছে সব সময়ই এক আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু। মহাকাশে নিত্যনতুন আবিষ্কারের নেশাও বিজ্ঞানীদের সব সময় তাড়া করে ফেরে। কিন্তু মহাকাশে নিজের শেষকৃত্যের কথা কেও কি কখনও ভেবেছেন? মনে হয় না। এবার সেটাও সত্যি হতে চলেছে। যুক্তরাষ্ট্রের একটি কোম্পানি দিচ্ছে মানুষের দেহের ছাইভস্ম মহাকাশে ছড়িয়ে দেওয়ার এই সুবর্ণ সুযোগ। ছাইভস্ম ছড়িয়ে দেওয়ার এই দৃশ্য আবার ক্যামেরায় ধারণও করা হবে। ওই প্রতিষ্ঠানটি বলেছে, পৃথিবীপৃষ্ঠের অমসৃণ রূপও এই ছবির মাধ্যমে ধরা পড়বে।

যুক্তরাষ্ট্রের কেনটাকি অঙ্গরাজ্যের লেক্সিংটনভিত্তিক ওই কোম্পানি মেসোসফট জানিয়েছেন, ‘ওয়েদার বেলুনের মাধ্যমে এই ছাইভস্ম মহাকাশে পাঠানো হবে। নির্দিষ্ট একটি উচ্চতায় পৌঁছানোর পর বেলুনের নিচের অংশের মুখ অটোমেটিকলি খুলে যাবে। এরপর মহাকাশে ছড়িয়ে পড়বে ছাইভস্ম। পৃথিবীর ৭ হাজার ৫শ’ ফুট উঁচু হতে শক্তিশালী ক্যামেরা এই ছাইভস্মের পুরো দৃশ্য ধারণ করবে। যা পরবর্তীতে মৃত ব্যক্তির আত্মীয়স্বজন এবং বন্ধুরা দেখতে পারবে।’

ওই কোম্পানিটি আরও জানায়, ‘মহাকাশে বায়ুশূন্যতা, মাধ্যাকর্ষণের প্রভাব ছাইভস্মগুলোকে বেলুনের কনটেইনার হতে বের করে দেবে। এভাবে ছাইগুলো অবশ্য কতক্ষণ ভেসে থাকবে তা বলা দুরুহ। তবে আগ্নেয়গিরির মডেল কল্পনা করা যেতে পারে। যদি আগ্নেয়গিরির ছাই বেলুনের উচ্চতায় না পৌঁছাতে পারে, তাহলে বলা যায়, ওই ছাইভস্ম পৃথিবীতে ফিরে আসতে বেশ কয়েক মাস সময় লেগে যাবে। এর কারণ হলো, আগ্নেয়গিরির ছাই স্থির হওয়ার পূর্বেই পৃথিবীতে ফিরে আসতে পারে। যে কারণে বৃষ্টি অথবা তুষারপাতের অংশ হিসেবে পৃথিবীতে ফিরে যাওয়ার আগ পর্যন্ত বেলুনের ছাইভস্ম কয়েক মাস বায়ুমণ্ডলের উঁচুতে অবস্থানও করতে পারে।’

ওই কোম্পানিটি জানিয়েছে, এভাবে মহাকাশকে নিজের শেষ এবং অন্তিম ঠিকানা বানাতে ব্যয় হবে কমপক্ষে ২ হাজার ৮শ’ ডলার হতে ৭ হাজার ৫শ’ ডলার পর্যন্ত। ইতিমধ্যেই ওই কোম্পানিটি প্রাথমিকভাবে ইন্ডিয়ানা, কলারাডো এবং নিউ মেক্সিকোতে এই প্যাকেজ ঘোষণা করেছে। এই প্যাকেজের ভিত্তিতে যে কেও চুক্তিবদ্ধ হতে পারবেন। এই প্যাকেজের পরিধি পরবর্তীতে আরও বাড়ানো হবে বলে জানানো হয়েছে।

তো আর সমস্যা কি। যদি কারো সেই খায়েস থাকে, আর যদি সাথে থাকে সামর্থ তাহলে প্যাকেজ নিয়ে ফেলতে পারেন!

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...