সাড়ে তিন হাজার বছরের পুরোনো কবরে ধন-রত্ন!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ যে ধর্মের মানুষের মৃত্যু হোক না কেনো, কবরে মানুষের সঙ্গে কোনো ধন-সম্পদ দেওয়া হয় না। কিন্তু সাড়ে তিন হাজার বছরের পুরোনো কবরে পাওয়া গেছে ধন-রত্ন!

3,500 year old tomb treasures

যে ব্যক্তির কবর থেকে ধন-রত্ন মিলেছে তিনি গ্রিসের একজন যোদ্ধা ছিলেন। সম্প্রতি মার্কিন প্রত্নতত্ত্ববিদরা তার কবর হতে উদ্ধার করলেন প্রচুর ধন-রত্ন। প্রায় সাড়ে ৩ হাজার বছর যাবত নির্ঝঞ্ঝাটে কবরে শায়িত ছিলেন তিনি।

প্রত্নতাত্ত্বিকরা যখন কবরটি খুঁড়লেন, তখন তাদের চোখ কপালে ওঠার মতো অবস্থা। কারণ হলো, কবরে শায়িত সেই যোদ্ধার পাশে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে রয়েছে অফুরন্ত ধন-রত্ন। শুধু তাই নয়, তার শরীরেও ছিল সোনা এবং রত্নখচিত গয়না-গাটি। ওই যোদ্ধার তরবারিটিও অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার হয়।

কবরটি ১.৫ মিটার চওড়া ও ২.৪ মিটার লম্বা। প্রত্নতত্ত্ববিদরা বলেছেন যে, গ্রিসে বিগত ৬৫ বছরের মধ্যে এমন ব্যতিক্রমি কোনো কবর আবিষ্কার হয়নি। তারা পরীক্ষা করে দেখেছেন, উদ্ধারকৃত গয়নাগুলো মিনোয়ান সভ্যতার। অন্তত চার হাজার বছর আগে এই ক্রিট দ্বীপে এই সভ্যতার আবির্ভাব ঘটেছিল। গবেষণা করে প্রত্নতত্ত্ববিদরা পেয়েছেন, এই কবরটি সাড়ে তিন হাজার বছরের পুরোনো কবর।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...