কুকুর বাঁচালো ডাস্টবিনে ফেলে যাওয়া নবজাতককে!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ সৃষ্টির সেরা জীব মানুষ। কিন্তু সেই মানুষ মাঝে-মধ্যেই অমানুষের তকমা পরে নেন। কখনওবা জন্মানো নিজের সন্তানকে ফেলে দেন ডাস্টবিনে! এবার ডাস্টবিনে ফেলে যাওয়া এমনই নবজাতককে বাঁচালো এক কুকুর!

Dog & dustbin baby

এমনই এক পাষণ্ড মা যিনি নিজের সন্তানকে জন্মের পর পরই ডাস্টবিনে ফেলে দিয়েছেন। ওই সন্তানের খোঁজ নেয়নি বাবাও। অসহায় নবজাতকের কান্নাও পৌঁছায়নি কোনো পথচারীর কানেও।

তবে এমন মানবিক কাজটি করলো একটি কুকুর। কুকুরই ওই নবজাতককে আলতো করে তার মুখে করে নিয়ে একটি নিরাপদ স্থানে নিয়ে এলো। আর সে কারণেই প্রাণে বাঁচে নবজাত শিশুটি।

এমন একটি ঘটনা ঘটেছে সৌদি আরবের কোনো একটি স্থানে। তবে জায়গাটির নাম জানানো হয়নি। ঘটনাটির সাক্ষী এক ব্যক্তির ক্যামেরায় তোলা ছবি হতে মূলত ঘটনাটি জানা যায়।

সত্যিই এক অবিশ্বাস্য ঘটনা এটি। সদ্যোজাতকে মৃত্যুমুখ হতে তুলে এনে প্রাণ ফিরিয়ে দেওয়ায় কুকুরটি এখন এলাকার ‘হিরো’। ইন্টারনেটে ভাইরাল ছবিটিতে সদ্যোজাতকে দেখে সিউড়ে উঠেছেন অনেকেই! তাই অনেকেই কুকুরের প্রশংসা করে বলেছেন, ‘কুকুরই মানুষের আসল বন্ধু।’

ভুপেন হাজারিকার সেই গানের অংশ বিশেষ… ‘যদি দানব কখনও হয় মানুষ, তবে লজ্জা কি তুমি পাবে না… মানুষ মানুষের জন্য..। এই ঘটনাটি সেই কথাটিই মনে করে দিচ্ছে। মানুষ আজ যে কাজটি করেছে। কুকুর হয়ে তা অনেকটা শুধরিয়ে দিয়েছে!

উল্লেখ্য, ধারণা করা হচ্ছে যে, অবৈধ সম্পর্কের কারণে হয়তো এই সন্তানের জন্ম হয়। নিজেদের কলঙ্ক ঢাকতেই হয়তো জন্মের পর সন্তানটিকে ডাস্টবিনে ফেলে দেওয়া হয়। আসলে আমাদের সমাজটা কত অদ্ভুত তাই না?

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...