রাম রহিমের ডেরায় রয়েছে বিলাসবহুল রিসোর্ট!

ভারতের ধর্ষক ধর্মগুরু রাম রহিমের রয়েছে বিশাল ডেরা। যার ভেতরে রয়েছে বিলাসবহুল ১৫টি রিসোর্ট

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ভারতের বিতর্কিত ধর্ম গুরু রাম রহিমের জেল হওয়ার পর বেরিয়ে আসছে নানা মুখরোচক খবর। এবার বেরিয়ে এসেছে রাম রহিমের ডেরায় বিলাসবহুল রিসোর্ট নিয়ে খবর!

ভারতের ধর্ষক ধর্মগুরু রাম রহিমের রয়েছে বিশাল ডেরা। যার ভেতরে রয়েছে বিলাসবহুল ১৫টি রিসোর্ট। এগুলো তার ব্যক্তিগত ডিজনিল্যান্ডের ভেতরেই অবস্থিত। এই ডিজনিল্যান্ডের ভেতরে আইফেল টাওয়ার, ক্রুজ জাহাজ এবং তাজমহলসহ বিখ্যাত ভবনের আদলে রিসোর্ট তৈরি করেছেন ধর্ষকগুরুক রাম রহিম।

ধর্ষণের দায়ে ২০ বছরের সাজাপ্রাপ্ত হয়েছেন ধর্ষক রাম রহিম। ধর্ষক ধর্মগুরু হিসেবে পরিচিতি পাওয়া ভারতের বিতর্কিত ধর্মগুরু রাম রহিম সিংয়ের বিলাসী জীবনের নানা কাহিনী উঠে আসছে সংবাদ মাধ্যমে।

কথিত এই ধর্মগুরু তার হরিয়ানায় সিরসার ডেরায় আগের দিনের রাজা-বাদশাদের মতোই জীবনযাপন করতেন।

এসব রিসোর্টে তিনি নারীদের (সাধ্বী) নিয়মিত যৌন নির্যাতন করতেন বলেও নানা অভিযোগ রয়েছে। সেখানে ভোগবিলাসের যাবতীয় ব্যবস্থাসহ সুইমিং পুলও রয়েছে। প্রতিটি রিসোর্টে দুই হতে তিনটিদ করে কক্ষ রয়েছে।

ডেরার ভেতরের ওই ডিজনিল্যান্ডে রাম রহিমের পালক মেয়ে হানিপ্রীত ইনসানের নাকি প্রবেশাধিকার ছিল। অল্প কয়েকজন বিশ্বস্ত সহযোগী ছাড়া সেখানে অন্য কারও প্রবেশাধিকার ছিল না। সাজানো বিলাসবহুল এই ডিজনিল্যান্ডেই তিনি সাধ্বীদের ধর্ষণ করতেন বলে জানা যায়।

রোজ রাতে রাম রহিম প্রধান সাধ্বীকে ফোন করে একজন অল্প বয়সী মেয়েকে ব্যক্তিগত ডিজনিল্যান্ডে তারই কক্ষে পাঠানোর জন্য বলতেন। সেখানেই তিনি ওই সাধ্বীকে ধর্ষণসহ যৌন নির্যাতন করতেন, ডেরায় ‘বাবার মাফি’ নামে সেটি পরিচিত।

উল্লেখ্য, গত ২৫ আগস্ট দুই নারী ভক্তকে ধর্ষণের দায়ে দোষী সাব্যস্ত হয় রাম রহিম। এরপর নেওয়া হয় রোহতক শহর হতে ১০ কিলোমিটার দূরের সানোরিয়া কারাগারে। পরে তাকে দুটি মামলায় ১০ বছর করে মোট ২০ বছরের কারাদণ্ডাদেশ দেন আদালত।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...