The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

ফিঙ্গারপ্রিন্টেই গাড়ির লক খোলা এবং চালু করতে পারবেন

ফিঙ্গারপ্রিন্টের মাধ্যমে লক খোলায় গাড়ি চুরির আশঙ্কা অনেকটাই কমে যাবে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ প্রযুক্তির উন্নয়নে দিন দিন মানুষের কাজের প্রসারতা কমতে শুরু করেছে। অর্থাৎ আপনাকে যে কাজ এক সময় শারীরিক পরিশ্রম করে করতে হত এখন সেই কাজ শুয়ে বা যেকোন জায়গাতে বসেই অনাসায়ে করতে পারছেন। গাড়ির লক খুলতে এবং গাড়ি চালু করতে আমরা সাধারণত চাবি ব্যবহার করি। তবে প্রযুক্তির উন্নয়নে এখন আর চাবি লাগবে না। আপনার ফিঙ্গারপ্রিন্টের মাধ্যমেই গাড়ির লক খুলতে এবং ইঞ্জিন চালু করতে পারবেন।

ফিঙ্গারপ্রিন্টেই গাড়ির লক খোলা এবং চালু করতে পারবেন 1

দক্ষিণ কোরিয়ার গাড়ি নির্মাতা কোম্পানি হুন্দাই তাদের নতুন গাড়িতে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর বসিয়েছে। হুন্দাই কোম্পানির গাড়িটির নাম দেওয়া হয়েছে সান্তা ফে এসইউভি। ইতিমধ্যে চীনের বাজারে গাড়িটি প্রদর্শন করা হয়েছে। গাড়ির যেকোন পাশের লক খুলতে গেলে আপনাকে ফিঙ্গারপ্রিন্ট দিতে হবে। ফিঙ্গার প্রিন্ট না মিললে গাড়ির লক খুলবে না। এমনকি গাড়ির ইঞ্জিন স্টার্ট দিতেও ফিঙ্গারপ্রিন্ট লাগবে।

এই প্রযুক্তির ফলে গাড়ি চুরি হওয়ার সম্ভবনা অনেকটাই কমে যাবে। কারণ গাড়ি চুরি করতে হলে প্রথমে লক খুলতে হবে নইলে ভেতরে প্রবেশ করতে পারবে না। তাই গাড়ির বাইরে এবং ভিতরে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর লাগানো হয়েছে। এছাড়া গাড়ির স্বয়ংক্রিয়ভাবে সিটের অবস্থান ও রিয়ার ভিউ মিররের অ্যাঙ্গেল ঠিক করতে প্রোগ্রাম সেট করার ব্যবস্থা রয়েছে।

অবশ্য বিগত বছর থেকেই বিএমডব্লিউ, টেসলা, ভলভো সহ বেশ কিছু গাড়ি নির্মাতা কোম্পানি তাদের তৈরি গাড়ির লক খুলতে এবং ইঞ্জিন চালু করতে স্মার্ট অ্যাপস ব্যবহার করেছে। অর্থাৎ আপনি একটি স্মার্টফোনে গাড়ির নির্দিষ্ট অ্যাপসটি ব্যবহার করে গাড়ির লক খোলা, ইঞ্জিন চালু করা থেকে শুরু করে নানা ধরণের কাজ করতে পারবেন।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...