The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

শনি গ্রহের দিনের দৈর্ঘ্য জানালো নাসা!‌

শনির বলয়ের তরঙ্গ নিয়ে পরীক্ষা চালিয়ে বুঝা গেছে যে, বলয়ের তরঙ্গ, গ্রহের মধ্যাকর্ষণ ক্ষেত্রের তরঙ্গের সঙ্গে মিলেই আন্দোলিত হয়

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ শনি গ্রহ নিয়ে গবেষণা কম হয়নি। কিন্তু সেখানে কতোক্ষণ দিন তা কিন্তু কেও জানতো না। তবে এবার সেই বিষয়টি জানালো নাসা। সেখানে কতোক্ষণ দিন থাকে সেই বিষয়টি জানিয়েছে নাসা!

শনি গ্রহের দিনের দৈর্ঘ্য জানালো নাসা!‌ 1

আপনি কী কখনও ভেবে দেখেছেন? শনি গ্রহে যদি আপনি বসবাস করতেন তাহলে কতোক্ষণ জেগে থাকতে হতো? এই প্রশ্নের উত্তর দিয়ে নাসা বলেছে মাত্র সাড়ে ১০ ঘণ্টা। বিশ্বাস করা না করার হিসাব যাই হোক এটিই সত্যি।

শনি গ্রহের উপর পরীক্ষা নিরীক্ষা চালানো নাসার মহাকাশযান ক্যাসিনির পাঠানো রিপোর্ট হতে জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা এই তথ্য জানতে পেরেছেন। যে কারণে আমাদের সৌরমন্ডলের বিজ্ঞানের অনেক অজানা তথ্যই জানা সম্ভব হবে বলে মনে করছেন জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা।

নাসার বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, ক্যাসিনির পাঠানো তথ্য হতে জানা যায়, শনি গ্রহে দিনের দৈর্ঘ্য হলো ১০ ঘণ্টা ৩৩ মিনিট ৩৮ সেকেন্ড। আর পৃথিবীর ২৯ বছরের সমান হলো শনির এক বছর। শনির বলয়ে ঢাকা পড়ে থাকায় এই তথ্য এতোদিন অজানা ছিল বিজ্ঞানীদের কাছে।

জ্যোতির্বিজ্ঞানের ছাত্র ক্রিস্টোফার ম্যাঙ্কোভিচ জানিয়েছেন, শনির বলয়ের তরঙ্গ নিয়ে পরীক্ষা চালিয়ে তিনি বুঝতে পেরেছেন যে, বলয়ের তরঙ্গ, গ্রহের মাধ্যাকর্ষণ ক্ষেত্রের তরঙ্গের সঙ্গে মিলেই আন্দোলিত হয়।

বলয়ের ভিতরের কণাগুলিতে সেই তরঙ্গ অনুভূত হলেও তাদের এক্ষেত্রে কোনো ভূমিকা নেই। তবে বলয়ের নির্দিষ্ট অংশে এই কণাগুলিতে সেই তরঙ্গ মিশে যে শক্তি উৎপন্ন হয়ে থাকে সেটি হতে উৎপন্ন হওয়া তরঙ্গ নিয়ে গবেষণা চালিয়ে শনির প্রদক্ষিণের সময় বিজ্ঞানীরা বুঝতে পেরেছেন।

জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা বলেছেন, পৃথিবী এবং বৃহস্পতির চৌম্বকীয় অক্ষ ও যে অক্ষের উপর গ্রহ দু’টি ঘুরছে সেটি পরস্পরের বিপরীতে অবস্থিত। তবে শনি গ্রহে এই দুটি অক্ষই এক দিকে বিদ্যমান। সেজন্যই বলয়ের ভিতরে হয়ে যাওয়া পরিবর্তনে গ্রহের দিন-রাতের সময়ের হিসাব ধরতে অসুবিধা হচ্ছিল বিজ্ঞানীদের।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...