The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

চুল রঙ্গিন করে নিজের কত বড় ক্ষতি করছেন জানেন কী?

চুলে রং করার ফলে সৌন্দর্য্য বৃদ্ধির পাশাপাশি নিজের অনেক ক্ষতিও হচ্ছে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ চুলে রং করা বর্তমানে এমন একটি ফ্যাশন হয়ে দাড়িয়েছে যা শহরের গন্ডী পেরিয়ে গ্রামাঞ্চলেও ব্যাপক প্রভাব বিস্তার করেছে। বিশেষ করে ১৫-২৫ বছরের ছেলে-মেয়েরা এই স্টাইলের প্রতি বেশি আকৃষ্ট। আমরা যারা মাথার চুলকে লাল, নীল, বাদামী নানা রংয়ে রাঙ্গিয়ে নিজেকে যেমন আধুনিক মনে করছে, ঠিক তেমনি আমাদের নানা মারাত্মক সমস্যার সৃষ্টিও করছি।

আজ আমরা জানবো চুলে এমন রং করার ফলে আমরা যে সকল সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছি।

১। এলার্জি সমস্যা বৃদ্ধিঃ

চুলকে বিভিন্ন রংয়ে রাঙ্গানোর জন্য যে সকল রং ব্যবহার করা হয়, তাতে প্যারাফেনালিন ডায়ামিন নামক এক ধরণের পদার্থ রয়েছে যা আমাদের শরীরে এলার্জি সৃষ্টি করতে পারে। আর এলার্জি কতটা বিরক্তিকর তা যারা এই সমস্যায় ভোগেন, কেবল তারায় বুঝতে পারেন।

২। ক্যান্সার সৃষ্টিঃ

বর্তমানে সবচেয়ে ভয়ঙ্কর একটি রোগের নাম হচ্ছে ক্যান্সার। দিনদিন মানুষ বিভিন্ন ক্যান্সারে আক্রান্ত হচ্ছে। প্রতিটি ক্যান্সার সৃষ্টির পেছনেই কোন না কোন কারণ রয়েছে। আমেরিকান ক্যানসার সোসাইটির গবেষণা অনুযায়ী চুলে রং করার জন্য আমরা যে কেমিকেল ব্যবহার করি, ক্যান্সার সৃষ্টির জন্য এটি অন্যতম। কারণ চুলের এই সমস্ত রংয়ে ক্ষতিকর বিভিন্ন রাসায়নিক উপাদান ব্যবহার করা হয়। যা চুলের মাধ্যমে আমাদের শরীরে প্রবেশ করে বিভিন্ন ক্যান্সারের সৃষ্টি করে থাকে।

৩। ত্বকের সমস্যা সৃষ্টিঃ

ত্বকের নানা ধরণের সমস্যা সৃষ্টির ক্ষেত্রে চুল রং করার জন্য ব্যবহৃত এই সমস্ত কেমিকেল ব্যাপক ভূমিকা রাখে। বিশেষ করে মাথার ত্বকের নানা সমস্যা সৃষ্টি, গলা এবং মুখোমন্ডলে নানা ধরণের স্কিন ডিজেজ সৃষ্টি হয়। কারণ মুখোমন্ডল এবং গলা চুলের নিকটবর্তী হওয়ায় এই অংশগুলো বেশি ঝুঁকিতে থাকে।

৪। চুলের প্রকৃত সৌন্দর্য্য নষ্ট করেঃ

একবার চুলে রং করার পর আপনি চুলের প্রকৃত সৌন্দর্য্য হারিয়ে ফেলবেন। কারণ প্রতিটি জিনিসেরই একটি প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য থাকে। আর যখন সেই জিনিসের প্রকৃত রং পরিবর্তন করা হয়, তখন স্বাভাবিকভাবেই তার সৌন্দর্য্য নষ্ট হয়।

৫। চোখের মারাত্মক ক্ষতি করেঃ

আগেই বলেছি চুলে বিভিন্ন রং করার কারণে সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে থাকে মুখোমন্ডল। তার মধ্যে চোখ সবচেয়ে বেশি স্পর্শকাতর জিনিস। প্রতিটি চুলের রংয়ের প্যাকেটের উপরই লেখা থাকে এটি ব্যবহারের সময় চোখ সাবধানে রাখতে। তাহলে বুঝতেই পারছেন কতটা ঝামেলা সৃষ্টি হতে পারে।

এখন নিজেই সিদ্ধান্ত নিন চুলে রং করা উচিৎ কি না। এবং অন্যদের এই সমস্যার হাত থেকে রক্ষা পেতে সাহায্য করুন।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...