The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

রেস্তোরায় গিয়ে যে আচরণগুলো করা উচিৎ নয়

রেস্তোরার পরিবেশে নিজেকে মানিয়ে নিতে হলে আপনাকে কিছু অভ্যাস ত্যাগ করতে হবে

দি ঢাকা টাইমস ডেস্ক।। বন্ধু-বান্ধব থেকে শুরু করে পরিবার এমনকি অফিসের সহকর্মীদের সাথে মাঝে মাঝেই রেস্তোরায় যেতে হয়। সেখানে নানা শ্রেনীর মানুষের আনাগোনা লক্ষ্য করা যায়। তাই ওই পরিবেশে নিজেকে মানিয়ে নিতে হলে আপনাকে কিছু অভ্যাস ত্যাগ করতে হবে। কারণ মাঝে মাঝেই বিভিন্ন রেস্তোরায় কিছু মানুষকে এমন সব আচরণ করতে দেখা যায়, যা প্রকৃতপক্ষে একজন জ্ঞানী ব্যক্তির করা উচিৎ নয়।

আজ আমরা জানবো রেস্তোরায় কোন আচরণগুলো করা উচিৎ নয়।

১। উচ্চস্বরে কথা বলাঃ

রেস্তোরা হচ্ছে একটি নিরিবিলি জায়গা যেখানে বসে ধীরে কথা বলতে হয়। অথচ কিছু মানুষ এই জায়গায় গিয়ে সেটাকে নিজের বাসা মনে করে। আপনি যখনি উচ্চস্বরে কথা বলবেন, তখনি অন্যরা বিরক্ত হবে। মনে রাখবেন এটা আপনার বাসা নয়। তাই অন্যদের সমস্যার পাত্র না হয়ে ধীরে কথা বলুন।

২। শব্দ করে খাওয়াঃ

অনেকেই রেস্তোরায় বসে শব্দ করে খাবার গ্রহণ করেন। এটা কখনই ঠিক নয়। যতটা সম্ভব শব্দ কম করে খাবার গ্রহণ করুন।শব্দ কম করে খাবার গ্রহণ করা ভদ্রতার একটি  অংশ।

৩। খাবার চিবানোর সময় কথা বলাঃ

খাবার চিবানোর সময় কথা বলা কিছু মানুষের আদি অভ্যাস। তারা খাবার চিবানোর সময় কথা না বললে মনে হয় খাবার হজমই হয় না। তবে মনে রাখবেনে, এভাবে খাবার চিবানোর সময় কথা বললে অন্যদের চোখে আপনি জ্ঞানহীন মানুষে পরিণত হবেন। কারণ এটা একটি অভদ্র কাজ। তাই খাবার চিবানোর সময় কথা বলা থেকে বিরত থাকুন।

৪। রেস্তোরায় বসে ফোন নিয়ে ব্যস্ত থাকাঃ

যখন রেস্তোরায় কারোর সাথে যাবেন, তখন ফোনে নিয়ে ব্যস্ততা দেখাবেন না। অনেকেই আছেন যারা রেস্তোরায় বসে ফোনে কথা বলা, ফেসবুক বা কোন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যস্ত হয়ে পরেন। এটা কখনই ঠিক নয়। তাই রেস্তোরায় যাওয়ার পর ফোন নিয়ে ব্যস্ততা থেকে বিরত থাকুন।

৫। বারবার ছবি তোলাঃ

কিছু মানুষ আছে যারা রেস্তোরায় বসে অহরোহ ছবি তুলতেই থাকে। নানা ভাবে ছবি তোলার পরও যেন মনের কাছে কোথায় কমতি থেকেই যায়। তাই বারবার ছবি তুলতেই থাকে। এমন আচরণ অন্যদের কাছে খুবই বিরক্তিকর। তাই রেস্তোরায় বসে যতটা সম্ভব কম ছবি তুলবেন।

৬। ধৈর্য্য ধারণ করুনঃ

রেস্তোরায় গিয়ে অনেক সময় দেখা যায় মানুষের চাপে খাবার পরিবেশন করতে ওয়েটারদের কিছু টা সময় লেগে যায়। এইদিকে কেউ আবার পুরো খাবারের যে অংশটুকু কাছে পায় তাই খেতে শুরু করে। এমন অভ্যাস পেটুক স্বভাবের মানুষদের থাকে যারা সামনে খাবার পেলে আর ধৈর্য্য ধারন করতে পারে না। পুরো খাবার পরিবেশন করার সুযোগ দিন। তারপর খাবার গ্রহণ করা শুরু করুন।

৭। ছুরি এবং চামচ ব্যবহার করুনঃ

কিছু খাবার রয়েছে যা ছুরি চামচ ব্যবহার করে খেতে হয়। সেই খাবার গুলো আপনি হাত দিয়ে খেতে থাকলে অন্যরা আপনাকে নিয়ে হাসাহাসি করবে। তাই যে খাবার যেভাবে খেতে হয় সেভাবেই খাবার অভ্যাস করুন।

৮। অন্যের খাবারের দিকে তাকিয়ে থাকবেন নাঃ

মনে করুন আপনি খাচ্ছেন, আর পাশের টেবিলের কেউ আপনার দিকে তাকিয়ে আছে। মাঝে মাঝেই সে আপনার দিকে তাকাচ্ছে। আপনার নিশ্চয় ভাল লাগার কথা নয়। তাহলে নিজের কাছে যেটা ভাল লাগবে না, তা অন্যের কাছে ভাল না লাগাটাই স্বাভাবিক। তাই রেস্তোরায় বসে অন্য কারোর খাবারের দিকে বা অন্য কারোর দিকে বেশি না তাকানই ভদ্রতা।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...