The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

এই ঈদেও মোশাররফ করিমের দেড় ডজন নাটক!

ঘরবন্দি দর্শককে বিনোদন দিতে ঈদের নতুন আয়োজন করার প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখে টিভি চ্যানেলগুলো

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ঈদ উৎসবকে ঘিরে প্রতিবছরই নতুন নাটক নির্মাণের জোয়ার শুরু হয়। তবে এবার করোনা ভাইরাসের সক্রমণে থেমে গেছে সবকিছুই। তারপরও এই ঈদেও মোশাররফ করিমের দেড় ডজন নাটক দেখা যাবে!

এই ঈদেও মোশাররফ করিমের দেড় ডজন নাটক! 1

নানা সংকটের মধ্যেই ঘরবন্দি হয়ে সময় কাটছে মানুষের। সব রকমের শুটিং বন্ধ রয়েছে। তাই তেমন নতুন নাটকও নির্মাণ হয়নি এবারের ঈদে।

এরমধ্যেও ঘরবন্দি দর্শককে বিনোদন দিতে ঈদের নতুন আয়োজন করার প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখে টিভি চ্যানেলগুলো। তবে লকডাউনের ঈদেও মোশাররফ করিমের ভক্তদের জন্য রয়েছে সুখবর। এই সংকটের মধ্যেও এবারের ঈদেও তার অভিনীত প্রায় দেড় ডজন নাটক প্রচার হবে বিভিন্ন চ্যানেলে। এসব নাটকের শুটিং লকডাউনের আগেই করা হয়েছিলো।

ঈদের দিন রাত সাড়ে ৭টায় মাছরাঙা টেলিভিশনে প্রচারিত হবে ‘এখানেতো কোন ভুল ছিল না’ নাটকটি।
ঈদের দ্বিতীয় দিন রাত ১০টায় আরটিভিতে প্রচারিত হবে নাটক ‘আমি পাগল বলছি’, ঈদের দিন আরটিভিতে প্রচার হবে ‘ঈদ মোবারক’।
ঈদের ৬ষ্ঠ দিন রাত ১০টায় আরটিভিতে প্রচার করা হবে নাটক ‘উচ্চতর ভালোবাসা’।
ঈদের দিন রাত ৮টা ৫ মিনিটে এনটিভিতে প্রচারিত হবে নাটক ‘শাহজাহান সৌরভ’, ঈদের চতুর্থ দিন রাত ৮টা ৫ মিনিটে এনটিভিতে দেখা যাবে ‘তুমি আমি এবং ‘ডিস্টার্ব’ নাটকটি।
ঈদের দ্বিতীয় দিন বিকাল সাড়ে ৫টায় ‘ভিউ বাবা’
ঈদের চতুর্থ দিন রাত ৭টা ৪৫ মিনিটে ‘নয় ছয়’
ঈদের সপ্তম দিন রাত ৭টা ৪৫ মিনিটে ‘গার্ল ফ্রেন্ড’
ঈদের পঞ্চম দিন রাত ৯টা ৫ মিনিটে ‘ম্যাগনেট বাবু’ নাটকটি প্রচারিত হবে। এই সবগুলো নাটক দেখানো হবে টিভি চ্যানেল বাংলাভিশনে।

এছাড়াও ‘রাজনীতি’, ‘এ ডে উইদাউট ফোন’ ও ধারাবাহিক নাটক ‘সদা সত্য বলিব’ একই চ্যানেলে প্রচার হবে। ‘লুকিয়ে বাঁচুক ভালোবাসা’, ‘ভাইরাল মাসুদ’, ‘কন্ট্রাক’, ‘যে শহরে টাকা ওরে’ সহ আরও কয়েকটি নাটক প্রচারের সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন মোশাররফ করিম নিজেই।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...