The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

এবার মেসেঞ্জারও লক করা যাবে!

ব্যবহারকারীকে পাঠানো বার্তা নিয়ন্ত্রণের সুবিধা রাখছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ করোনার কারণে ফেইসবুকের মেসেঞ্জার’র ব্যবহার বেড়েছে। এতে করে মেসেঞ্জারে নতুন প্রাইভেসি নিয়ন্ত্রণ সুবিধা যুক্ত করতে চলেছে ফেইসবুক। এবার মেসেঞ্জারও লক করা যাবে!

এবার মেসেঞ্জারও লক করা যাবে! 1

ব্যবহারকারীকে পাঠানো বার্তা নিয়ন্ত্রণের সুবিধা রাখছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। মেসেঞ্জার অ্যাপে নতুন সেটিংসটি পরীক্ষা চালাবে ফেইসবুক। এতে মেসেঞ্জারে পছন্দ অনুযায়ী কল এবং বার্তার আসার বিষয়ে সিদ্ধান্তও নিতে পারবেন ব্যবহারকারী।

ধরুন আপনার স্মার্টফোনটি আনলক করে কোনো বন্ধু কিংবা কোনো ছোট মানুষের হাতে দিলেন। সেই বন্ধু বা ছোট মানুষটি ঢুকে গেলো আপনার মেসেঞ্জারে। দেখে ফেললো কোনো ব্যক্তিগত আলাপন! নিশ্চয়ই ব্যাপারটা খুব একটা সুখকর হবে না আপনার জন্য।

এই বিড়ম্বনা হতে বাঁচা যাবে খুব সহজেই। কারণ হলো মেসেঞ্জারও এবার নিয়ে এসেছে আপনার চ্যাট গোপন করে রাখার নতুন পদ্ধতি। খুব সহজেই এই পদ্ধতি প্রয়োগ করে যে কোনো বিড়ম্বনাময় পরিস্থিতি হতে আপনি সহজেই নিস্তার পেতে পারেন।

সেই সুবিধাটি নেওয়ার জন্য মেসেঞ্জারে গিয়ে আপনাকে ছবির উপর টাচ করতে হবে, যা সাধারণত উপরের বাঁ দিকেই থাকে। অ্যান্ড্রয়েড কিংবা আইওএসের ভিন্ন ভিন্ন সংস্করণে এই ছবির অবস্থান ভিন্ন ভিন্ন জায়গায়ও হতে পারে। এতে কোনো সমস্যা হবে না।

আপনার প্রোফাইল ছবির উপর টাচ করার পর প্রাইভেসি বলে একটি অপশনও পাবেন। সেটি থেকে অ্যাপ লক অপশনে গিয়েই অন করে দিন। এই ক্ষেত্রে আপনার ফোনে যে কটি নিরাপত্তা ব্যবস্থা রয়েছে, তার মধ্যে সবচেয়ে সেরাটি আপনি ব্যবহার করতে পারবেন।

অর্থাৎ আপনার ফোনে যদি ফিঙ্গারপ্রিন্ট লক এবং ফেইসলক উভয়ই থেকে থাকে, তাহলে আপনি ফেইসলকও বেছে নিতে পারবেন। এই দুটির কোনোটি না থাকলে পিন কিংবা পাসওয়ার্ড দিয়েও আপনি মেসেঞ্জার লক করে রাখতে পারবেন।

এই সেবাটি চালু করার সময় আপনি ৪টি অপশন বেছে নিতে পারবেন। মেসেঞ্জার হতে অন্য অ্যাপে গেলেই কি মেসেঞ্জার লক হবে, তা নির্ধারণ করতে পারবেন; বা এক মিনিট পর লক হবে, ১৫ মিনিট কিংবা এক ঘণ্টা পর লক হয়ে যাবে, সেই বিষয়গুলো আপনি নির্ধারণ করে দিতে পারবেন।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...