The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

সুশান্তের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তী গ্রেফতার

গতকাল মঙ্গলবার (৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ভারতের নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর (এনসিবি) জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ বহুল আলোচিত বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর ঘটনায় তারই ঘনিষ্ঠ বান্ধবী অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সুশান্তের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তী গ্রেফতার 1

গতকাল মঙ্গলবার (৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ভারতের নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর (এনসিবি) জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। সুশান্তের মৃত্যুর ৮৬ দিন পর গ্রেফতার হলেন আলোচিত এই রিয়া চক্রবর্তী।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জি নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়, গত রবিবার ও সোমবার টানা দুদিন রিয়াকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দেশটির এনসিবি। গতকালও তাকে এনসিবি কার্যালয়ে তলব করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদের কিছুক্ষণ পরই মাদককাণ্ডে তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়।

মাদককাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে ইতিপূর্বে রিয়ার ভাই সৌভিক চক্রবর্তী, সুশান্তের বাড়ির ম্যানেজার স্যামুয়েল মিরান্ডা এবং সুশান্তের বাবুর্চি দীপেশ সাওয়ান্তকেও গ্রেফতার করা হয়। গত রবিবার গ্রেফতারকৃতদের মুখোমুখি বসিয়েই রিয়াকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

গত রবিবার ভারতীয় সংবাদ সংস্থা এএনআইকে রিয়ার আইনজীবী সতীশ মানেশিণ্ডে বলেছেন যে, ‘উইচ হান্ডের এই খেলায় রিয়া গ্রেফতার হতে সব সময় প্রস্তুত। যদি কাওকে ভালোবাসা অপরাধ হয়ে থাকে, তাহলে তিনি এর পরিণাম ভুগতেও তৈরি।’

নিরাপরাধ হয়েও রিয়া বিহার পুলিশ, সিবিআই, ইডি, এনসিবি কোনও মামলায় আদালতে আগাম জামিন চাননি বলেও তার এই আইনজীবী জানান।

উল্লেখ্য যে, গত ১৪ জুন মুম্বাইয়ের বান্দ্রার বাড়ি হতে সুশান্ত সিং রাজপুতের ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। তারপর মুম্বাই পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করে। পরে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে তা কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা (সিবিআই) এর হাতে দেওয়া হয় তদন্তভার।

সুশান্তের মৃত্যুর ঘটনায় করা মামলায় রিয়ার হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাপ হতে মাদক সেবনের বিষয়টি সামনে উঠে আসে। তারপর রিয়ার মাদককাণ্ড নিয়ে এনসিবি পৃথকভাবে তদন্ত শুরু করে।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...