এবার মানুষ অদৃশ্য করার প্রযুক্তি আবিস্কৃত হলো যুক্তরাষ্ট্রে!

নফ্রারেড নাইট ভিশন টুল হতে মানুষকে অদৃশ্য করতে নতুন উপাদান তৈরি করেছে ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়ার আরভাইনের গবেষকবৃন্দ

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ সিনেমার মধ্যে আমরা মানুষ অদৃশ্য হয়ে যাওয়ার দৃশ্য দেখেছি। বাস্তবে কোনোদিন এমনটি হতে পারে তা আমরা কখনও ভাবিনি। তবে এবার মানুষ অদৃশ্য করার প্রযুক্তি আবিস্কৃত হলো যুক্তরাষ্ট্রে!

নানা গবেষণা মানুষকে অনেক এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। আমরা আগে দেখতাম সিনেমাতে মানুষকে অদৃশ্য করে দেওয়া হচ্ছে। তবে এবার মানুষকে অদৃশ্য করার প্রযুক্তি আবিস্কার করেছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একটি গবেষক দল। সম্প্রতি ইনফ্রারেড নাইট ভিশন টুল হতে মানুষকে অদৃশ্য করতে নতুন উপাদান তৈরি করেছে ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়ার আরভাইনের গবেষকবৃন্দ। স্কুইডের অদৃশ্য হওয়ার ক্ষমতার ওপর ভিত্তি করেই নতুন এই উপাদানটি প্রস্তুত করেছেন গবেষকরা!

মানুষকে অদৃশ্য করার প্রযুক্তি এতোদিন শুধু সায়েন্স ফিকশনেই দেখা যেতো। তবে এবার তা বাস্তবে আনার জন্য গবেষকরা প্রাণপণ চেষ্টা চালাচ্ছেন। এই আবিষ্কার বাস্তবে মানুষের নাগালে এলে আগামী দিনে সেনাবাহিনী ও বিভিন্ন পরিকাঠামো রক্ষা করতে এই প্রযুক্তিটি ব্যবহার করা যেতে পারে বলে মনে করছেন এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট গবেষকরা।

এই বিষয়ে গবেষকদের মধ্যে অন্যতম অ্যালন গোরোডেস্কি জানিয়েছেন যে, আমরা মূলত একটি নরম উপাদান তৈরি করেছি, যা স্কুইডের চামড়া যেভাবে আলোর প্রতিফলন করে ঠিক একইভাবে তাপ প্রতিফলিত করতে পারে। এটি অমসৃণ ও অনুজ্জ্বল অবস্থা হতে মসৃণ ও চকচকে রূপ ধারণ করতে পারে, যেভাবে এটি তাপের প্রতিফলন ঘটিয়ে থাকে।

সংবাদ মাধ্যমের খবরে আরও জানা যায়, নতুন এই উপাদানের সম্ভাব্য ব্যবহার বিশেষ করে সেনাসদস্যদের আরও ভালো ছদ্মবেশ ও মহাকাশযান, স্টোরেজ কনটেইনারসহ একাধিক কাজে এটি ব্যবহার করা যাবে।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...