The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

পরীমনিকে জড়িয়ে সাকলায়েনকাণ্ডে বিব্রত পুলিশ

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ পরী মনির সঙ্গে পুলিশ কর্মকর্তা গোলাম সাকলায়েন শিথিলের অনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের ঘটনায় ইতিমধ্যেই তোলপাড় শুরু হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে পুলিশ বেশ বিব্রত।

পরীমনিকে জড়িয়ে সাকলায়েনকাণ্ডে বিব্রত পুলিশ 1

বিতর্কিত ও আলোচিত চিত্রনায়িকা শামসুন্নাহার স্মৃতি ওরফে স্মৃতিমনি ওরফে পরীমনির সঙ্গে পুলিশ কর্মকর্তা গোলাম সাকলায়েন শিথিলের অনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর তোলপাড় শুরু হয়েছে। এই পুলিশ কর্মকর্তা ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা শাখার গুলশান অঞ্চলের অতিরিক্ত উপকমিশনারের (এডিসি) দায়িত্বে পালন করছিলেন। আশুলিয়ার বোট ক্লাবকাণ্ডে সাভার মডেল থানায় পরীমনির করা মামলার তদারকি কর্মকর্তার দায়িত্বে থাকা সাকলায়েন তদন্তে সহায়তার নামে চিত্রনায়িকা পরীমনির সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়েছেন। এই ঘটনায় বিব্রত পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। সমালোচনার মুখে গতকাল (শনিবার) ডিএমপির এডিসি গোলাম সাকলায়েন শিথিলকে দায়িত্ব থেকে প্রত্যাহার করা হয়। এছাড়াও পুলিশ সদর দপ্তরের নির্দেশে শুরু করা হয়েছে বিভাগীয় তদন্ত। গঠন করা হচ্ছে উচ্চ পর্যায়ের তদন্ত কমিটিও। যার দায়িত্বে রয়েছেন ডিএমপির একজন অতিরিক্ত কমিশনার। পরীমনি, পিয়াসা এবং মৌ-এর তৎপরতার তদন্তে নেমে আরও কয়েকজন পুলিশ কর্মকর্তার ব্যাপারেও খোঁজখবর শুরু হয়েছে বলেও বিভিন্ন সূত্র হতে শোনা যাচ্ছে।

নায়িকা পরীমনির সঙ্গে পুলিশ কর্মকর্তা শিথিলের রাজারবাগের সরকারি ফ্ল্যাটে ১৮ ঘণ্টা সময় কাটানো, তাকে নিয়ে হাতিরঝিলে গাড়ি নিয়ে ঘুরে বেড়ানো, মদপান এবং গত কোরবানির ঈদে পরীমনির বাসায় তিন দিন কাটানো- সবমিলিয়ে সমালোচনার ঝড় বইছে। তদন্ত এবং তদারকির নামে বাদীর সঙ্গে এমন কাণ্ডে বিব্রত বোধ করছে পুলিশ।

এদিকে ঘটনাটিকে অনৈতিক কাজ হিসেবে অভিহিত করে ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম জানিয়েছেন, যদি এমন কিছু হয়ে থাকে তদন্ত সাপেক্ষে অবশ্যই ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন তারা। ডিবি প্রধান অতিরিক্ত কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার জানিয়েছেন যে, ডিএমপি কমিশনারের সিদ্ধান্তে এডিসি গোলাম সাকলায়েনকে ডিবির সব কার্যক্রম থেকে ইতিমধ্যেই নিবৃত্ত করা হয়েছে। এছাড়াও তাকে পিওএম পশ্চিমে পদায়িত করা হয়েছে। এই ঘটনায় অবশ্যই তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে। তাদের কাছ থেকে পাওয়া রিপোর্টের পরিপ্রেক্ষিতে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...