‘পাখি’কে নিয়ে ভুয়া খবরের প্রতিবাদ করলেন জয়া ও সাবা

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ স্টার জলসাখ্যাত অভিনেত্রী ‘পাখি’ ওরফে মধুমিতা চক্রবর্তীকে নিয়ে মিথ্যা খবর প্রকাশ করার প্রতিবাদ করলেন বাংলাদেশের দুই অভিনেত্রী জয়া ও সাবা।

Pakhike protested about fake news Jaya and Saba

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের জনপ্রিয় টিভি অভিনেত্রী হলেন মধুমিতা চক্রবর্তী। স্টার জলসাতে ‘বোঝে না সে বোঝে না’ ধারাবাহিকের ‘পাখি’ চরিত্রে অভিনয় করে ভারত ও বাংলাদেশে জনপ্রিয়তা অর্জন করেন মধুমিতা চক্রবর্তী। সম্প্রতি তিনি অভিযোগ করেছেন, বাংলাদেশের কয়েকটি অনলাইন পোর্টাল তাঁকে নিয়ে মিথা খবর ও তাঁর বিকৃত ছবি প্রকাশ করেছে।

বিষয়টি নিয়ে কোলকাতার লালবাজারে কোলকাতা পুলিশের প্রধান কার্যালয়ে গিয়ে বাংলাদেশের তিনটি অনলাইন পত্রিকার বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্টভাবে অভিযোগও করেছেন মধুমিতা। তবে সাংবাদিকদের অনলাইন পত্রিকা তিনটির নাম প্রকাশ করেননি।

মধুমিতার দাবি হলো, গত সপ্তাহে কয়েকটি বাংলাদেশী ওয়েবসাইট তাঁর সম্পর্কে ভুয়া ‘দেহব্যবসা’র খবর প্রকাশ করে। খবরের সঙ্গে ওয়েবসাইটগুলোতে তাঁর ছবি বিকৃত করে প্রকাশ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মধুমিতা চক্রবর্তী।

অনলাইনে এরকম ভুয়া খবর এবং বিকৃত ছবি প্রকাশের প্রতিবাদ জানিয়েছেন বাংলাদেশের দুই জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসান এবং সোহানা সাবা। এই দুজনই সম্প্রতি বেশকিছু ভারতীয় চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন।

মধুমিতা চক্রবর্তীর অভিযোগ সম্পর্কে টাইমস অব ইন্ডিয়াকে জয়া আহসান বলেন, ‘এটা খুবই দুঃখজনক। নারীরা সবসময়ই এই ধরণের হেনস্তার শিকার হন। নারীদের নিয়ে এমন সব মন্তব্য করা হয় মাঝে-মধ্যেই যেটা শালীনতার সীমা ছাড়িয়ে যায়’।

জয়া নিজেও অনলাইনে এ ধরণের হেনস্তার স্বীকার হয়েছেন দাবি করে বলেছেন, “যখন আমার ‘রাজকাহিনী’ ছবিটি মুক্তি পেলো তখন আমাকে নিয়েও নানা ধরণের কথা বলা হয়েছে। ছবিতে আমি নাকি একজন যৌনকর্মীর ভূমিকায় অভিনয় করেছি। আমি ছবিটির চিত্রনাট্য লিখিনি বা পরিচালনাও করিনি। আমি শুধু আমার অংশের দৃশ্যগুলোতে পরিচালকের নিদের্শনা অনুযায়ী অভিনয় করেছিমাত্র। তারপরও আমাকে নানারকম বাজে মন্তব্য শুনতে হয়েছে।’

জয়া বলেছেন, এ ধরণের ভুয়া খবরের বিরুদ্ধে তিনি নিশ্চুপ থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। কারণ হিসেবে তিনি বলেছেন, ‘এ ধরণের ভুয়া খবর যেসব নিউজ পোর্টাল ছড়ায়, সেগুলো খুবই ছোট ওয়েবসাইট, ব্যাঙের ছাতার মতো গজিয়ে ওঠেছে এগুলো। নিজের বাসায় বসে অনেকেই এরকম ওয়েবসাইট চালায়। এসব সাইটের মূল উদ্দেশ্যেই থাকে হিট বাড়ানো। ‘পাখি’ চরিত্রটি বাংলাদেশের দর্শকদের কাছে খুব জনপ্রিয়। আর সে কারণেই মধুমিতাকে নিয়ে এসব খবর করা হয়েছে”।
জয়া বলেছেন, তিনি চান মধুমিতা যেনো ন্যায়বিচার পান। অপসাংবাদিকতার বিরুদ্ধে এই লড়াইয়ে তিনি সব সময় মধুমিতার পাশে আছেন।

আরেক বাংলাদেশী অভিনেত্রী সোহানা সাবাও মুখ খুলেছেন। টাইমস অব ইন্ডিয়াকে তিনি বলেন, ‘প্রতিবাদ করতে শেখাটা এটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। মধুমিতা প্রতিবাদ করে ঠিক কাজটিই করেছেন। আমার মনে হয় এখনই সময় এসেছে, আমাদের সবারই এ ধরণের ভুয়া খবরের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করা উচিত’।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...