The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

‘ত্রাসের’ রাজত্ব কায়েম করেছে এক মুরগি!

ফ্রান্সের নরম্যান্ডি উপকুলের কাছে যুক্তরাজ্যের নিয়ন্ত্রণাধীন জারসি নামক একটি দ্বীপ

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ মানুষ ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে সেটি আমাদের সকলের জানা। কিন্তু তাই বলে অবলা জীব মুরগি নাকি কায়েম করেছে ত্রাসের রাজত্ব! এও কী সম্ভব?

‘ত্রাসের’ রাজত্ব কায়েম করেছে এক মুরগি! 1

দ্য টেলিগ্রাফ- এর এক খবরে বলা হয়েছে, ফ্রান্সের নরম্যান্ডি উপকুলের কাছে যুক্তরাজ্যের নিয়ন্ত্রণাধীন জারসি নামক একটি দ্বীপ। ওই দ্বীপে একদল বন্য মুরগি ‘ত্রাসের’ রাজত্ব কায়েম করেছে! কখনও তারা সড়ক ‘অবরোধ’ করছে, আবার কখনও মানুষের বাগানে হামলা চালিয়ে তছনছ করছে ফসলাদী। আবার কখনও কখনও প্রাতর্ভ্রমণে বের হওয়া ব্যক্তিরা তাড়াও খাচ্ছেন। কখনও বা মাঝরাতে ‘চিৎকার-চেঁচামেচি’ করে মুরগিগুলো মানুষের ঘুম ভাঙিয়ে দিচ্ছে! এভাবেই তারা কায়েম করেছে ত্রাসের রাজত্ব!

স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন যে, বন্য মুরগিগুলো প্রতিনিয়ত উৎপাত করছে এই জারসি দ্বীপের বাসিন্দাদের। ওই দ্বীপে কোনো শিয়াল না থাকার কারণে তা একপ্রকার মুরগিগুলোর জন্য অভয়ারণ্যেই পরিণত হয়েছে। উৎপাত ঠেকাতে বার বার উদ্যোগও নেওয়া হয়। তবে স্থানীয় বাসিন্দাদের অনেকেই মুরগিগুলো দ্বীপেই রাখার পক্ষে মত দেন। সে কারণে স্থানীয় সরকারও বেশ বেকায়দায় পড়েছে।

এই বিষয়ে একটি ভিডিওতে দেখা যায় যে, জারসি দ্বীপে সাধারণ মানুষকে মুরগিগুলোর হাত হতে রক্ষা করতে মাঝে মধ্যেই দেখা যায় পুলিশ পাহারা দিচ্ছে!

জারসি দ্বীপের পরিবেশমন্ত্রী জন ইয়ং বলেছেন যে, বড় সংখ্যক একদল মুরগির সঙ্গে লড়াই করতে হচ্ছে তাদেরকে। চলতি বছর ইতিমধ্যে তার কাছে মুরগিগুলোর বিরুদ্ধে ৪০টিরও বেশি অভিযোগ জমা পড়েছে। তবে স্থানীয় বাসিন্দাদের অনেকেই মুরগিগুলো দ্বীপেই রাখার পক্ষে মত দেওয়ায় তেমন কোনো ব্যবস্থা নেওয়া সম্ভব হচ্ছে না। তবে নিরাপত্তার জন্য পুলিশ কাজ করছে। যাতে করে কেও বড় ধরনের কোনো সমস্যায় না পড়েন।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...