ফেসবুকে নিজেকে নিরাপদ রাখতে কিছু টিপস

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক॥ ফেসবুকে অসংখ্য ব্যবহারকারীর মাঝে আপনিও একজন, যেহেতু ফেসবুকে ১.২৬ বিলিওন ব্যবহারকারী রয়েছে সুতরাং ফেসবুকের এই বিশাল ব্যবহারকারী হ্যকার এবং অন্যান্য অ্যাড ফার্ম কিংবা প্রতারকের জন্য প্রধান আকর্ষণ। এসব কথা মাথায় রেখে আপনাকে অবশ্যই জানতে হবে আপনার নিরাপত্তার স্বার্থে ফেসবুকে কি করতে হবে এবং কি করতে হবেনা সেই প্রেক্ষিতে ঢাকা টাইমসের আজকের আয়োজন।


Lock Icon: Facebook

অনেকেই জানেন না ফেসবুকে কি করা উচিৎ কি করা উচিৎ নয়। না জেনে নিজের ব্যক্তিগত অনেক কিছু শেয়ার করে অনেকেই বিপদে পড়েন। চলুন জেনে নিই ফেসবুকে আপনার নিরাপত্তার স্বার্থে কি করা উচিৎ কি করা উচিৎ নয়।

যা আপনার অবশ্যই করা উচিৎঃ

  • আপনি অবশ্যই আপনার ফেসবুক প্রোফাইলটি রিভিউ করুন। এখানে এমন কিছু শেয়ার করা উচিৎ নয় যা আপনার বিষয়ে গোপন কোন তথ্য অপরিচিতদের হাতে চলে যেতে সাহায্য করে। আপনার প্রোফাইলে থাকা আপনার ব্যক্তিগত তথ্য যেমন ইমেইল ঠিকানা, ব্যক্তিগত মোবাইল নাম্বার কিংবা আপনার অতীতের কোন প্রতিষ্ঠানে কাজের হিস্টরি যদি আপনার প্রোফাইলে থাকে তবে তা অনলি মি কিংবা অনলি ফেন্ড করে দিন।
  • আপনার বন্ধুদের নিয়ে আলাদা কিছু ফেন্ড লিস্ট তৈরি করুন যেখানে থাকবে, বন্ধু, কলেজ বন্ধু, স্কুল বন্ধু, বন্ধুদের বন্ধু, কলিগ ইত্যাদি তাহলে আপনার পোস্ট শেয়ারের ক্ষেত্রে যাদের যাদের ঐ পোস্ট শেয়ার করলে আপনার জন্য ইতিবাচক হবে তাদের চিহ্নিত করে পোস্ট দিতে পারবেন এটি আপনাকে অনেকটাই নিরাপদ করে দিবে।
  • বন্ধু তালিকা তৈরি করে সেখানে ঠিক করে দিন কোন তালিকার বন্ধুরা আপনার কোন পোস্ট দেখতে পাবে, এবং পোস্ট করার আগে অবশ্যই খেয়াল করবেন আপনার পোস্টটি কি হিসেবে শেয়ার করছেন শুধুই বন্ধু? নাকি বন্ধুদের বন্ধু অথবা পাবলিক! স্পর্শকাতর বিষয়ে শেয়ারের ক্ষেত্রে অবশ্যই দ্বিতীয়বার ভেবে শেয়ার করবেন।
  • সম্প্রতি আপনার শেয়ার করা সকল পোস্ট কিছুদিন পর পর রিভিউ করুন এবং সেখানে যদি কোন ব্যক্তিগত তথ্য থাকে যা এখন রাখা উচিৎ নয় তবে অবশ্যই তা মুছে ফেলুন কিংবা ভিউতে অনলি মি করে দিন।
  • আপনি যখন মোবাইলে ফেসবুক ব্রাউজ করবেন তখন অবশ্যই লোকেশন শেয়ার অপশন বন্ধ রাখুন।
  • আপনার পাস ওয়ার্ড অবশ্যই মাসে একবার পরিবর্তন করুন এবং কখনোই দুইবার একই পাস ওয়ার্ড ব্যবহার করবেন না।
  • অবশ্যই খেয়াল রাখবেন যেন ফেসবুক পাস ওয়ার্ড আপনার অন্য কথাও দেয়া পাস ওয়ার্ডের সাথে মিল না থাকে এতে একাউন্ট হ্যাক হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।
  • সব শেষে আপনার ছবি এ্যালবাম সমূহের প্রাইভেসি ব্যবস্থা আবার রিভিউ করুন।

ফেসবুকে যা আপনি অবশ্যই করবেন নাঃ

  • আপনি যদি টিনএজ কিংবা তরুণ ফেসবুক ব্যবহারকারী হউন তবে অবশ্যই আপনার ব্যক্তিগত বিষয় সমূহ ফেসবুকে পোস্ট করা থেকে বিরত থাকুন। কারণ ফেসবুকে প্রতি ৪ জনের ১ জন কোন না কোন প্রতারণার শিকার হয়।
  • কখনোই অনিরাপদ ওয়াইফাই নেটওয়ার্ক দিয়ে ফেসবুক ব্যবহার করবেন না। আপনি যদি বিপদে পড়ে ব্যবহার করেও থাকেন তবে দ্রুত আপনার পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করে নিন।
  • কখনোই আপনার বন্ধুদের আপনাকে ফেসবুকে অযাচিত ছবি কিংবা পোস্টে ট্যাগ করতে দিবেন না, আপনি আপনার ট্যাগ রিভিউ অপশন চালু করুন।
  • কখনোই কোন ফেসবুক নিরাপত্তা ব্যবস্থাকে অবহেলা করবেন না। মনে রাখবেন ফেসবুক আপনার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতেই এসব ব্যবস্থার সমন্বয় ঘটাচ্ছে।

ফেসবুকে নিরাপত্তা বিষয়ে আরও বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন।

সূত্রঃ Makeuseof

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...