The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

দূরারোগ্য ক্যান্সার প্রতিরোধে করণীয়

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ সাম্প্রতিক সময়ে দূরারোগ্য ক্যান্সারের প্রকোপ মারাত্মক বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে এই দূরারোগ্যটি কিভাবে প্রতিরোধ করা যায় তা জানা একান্ত প্রয়োজন।

green-food

এই ক্যান্সার নিয়ে বিশ্বে গবেষণারও শেষ নেই। গবেষকরা অনেক রকমের ওষুধ আবিষ্কার করলেও পুরোপুরিভাবে এই ক্যান্সার প্রতিরোধে কোন ওষুধ আজ পর্যন্ত আবিষ্কার হয়নি। কারণ এই ক্যান্সার যাকে একবার ধরেছে- তার আর নিস্তার নেই। এই জন্য অনেকেই বলেন, ‘যার হয় ক্যান্সার, তার নাই নিস্তার’।

এমন এক সময় ছিল যখন ক্যান্সার কি জিনিস তখন মানুষ তা জানতো না। কিন্তু যত আধুনিক যুগ আসছে ততই এর প্রপোকতাও বাড়ছে। এমন পরিস্থিতির মূল কারণ ভেজাল খাবার। খাদ্যে ভেজাল এখন নিত্য দিনের সঙ্গী। আর এ সব ভেজাল খাবার খেয়ে মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে ক্যান্সারের মতো সব কঠিন রোগে।

ন্যাশনাল ক্যানসার ইনস্টিটিউট যুক্তরাষ্ট্রের এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, সব ধরনের ক্যানসারের সঙ্গেই খাদ্যের একটা যোগ রয়েছে। সাম্প্রতিককালে ১৭টি দেশের ১৭০টি গবেষণায় দেখা যায়, খাদ্যতালিকা একটু পাল্টে নিলেই ক্যানসারের ঝুঁকি অনেক কমে। ক্যানসার প্রতিরোধী বিভিন্ন খাবার প্রতিদিন কিছু পরিমাণে গ্রহণ করলে ঝুঁকি অনেকাংশে কমবে। আসুন আজ আমরা জেনে নেই খাদ্যগুলোর কথা।

vegetable-market

কমলা রঙের সবজি, গাজর, হলুদ

কমলা রঙের সবজি, গাজর, হলুদ এসবে রয়েছে ক্যানসার প্রতিরোধী বিটাক্যারোটিন, যা ক্যানসার কোষের ওপর চড়াও হয় হয় এবং প্রতিরোধ করে।

তরমুজ, টমেটো

তরমুজে ও টমেটোতে রয়েছে লাইকোপেন, যার পরিমাণ রক্তে কম হলে অগ্ন্যাশয়ের ক্যানসারের ঝুঁকি বেড়ে যায় প্রায় পাঁচ গুণ ।

সবুজ শাকসবজি

সবুজ শাকসবজিতে ক্যানসাররোধী বিটাক্যারোটিন, ফোলেট ও লিউটেইন থাকে। যে শাকসবজি যত গাঢ় সবুজ, তাতে তত বেশি উপাদান রয়েছে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

ফুলকপি, বাঁধাকপি, শালগম

বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, অল্প সেদ্ধ করলে সবজির উপাদান ঠিক থাকে, যা ক্যানসার প্রতিরোধে সাহায্য করে। এই সবজি নিয়মিত গ্রহণে খাদ্যনালির ক্যানসারের ঝুঁকি প্রায় ৭০ শতাংশ কমে যায়।

পেঁয়াজ ও রসুন

পেঁয়াজ-রসুন জাতীয় সবজিতে রয়েছে খাদ্যনালি, পাকস্থলী, ফুসফুস ও যকৃতের ক্যানসাররোধী কয়েকটি উপাদান, যা রসুনের নির্যাস স্তন ক্যানসারের ঝুঁকির প্রায় ৭১ শতাংশ কমিয়ে দেয় বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

সয়াবিন

ক্যানসাররোধী অন্তত পাঁচটি উপাদান রয়েছে সয়াবিনে। এসবের মধ্যে একটি উপাদানের রাসায়নিক বৈশিষ্ট্য স্তন ক্যানসারে ব্যবহূত ওষুধ টেমোক্সিফেনের মতো বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

দুধ (স্বল্প চর্বিসম্পন্ন)

স্বল্প চর্বিসম্পন্ন দুধে রয়েছে ক্যালসিয়াম, রিবোফ্ল্যাবিন, ভিটামিন এ, সি, ডি প্রভৃতি উপাদান, যা ক্যানসারের বিরুদ্ধে কাজ করে থাকে।

ভিটামিন ‘সি’ সমৃদ্ধ ফল

যারা প্রতিদিন কিছু না কিছু ভিটামিন ‘সি’সমৃদ্ধ ফল খায়, তাদের অগ্ন্যাশয় ক্যানসারের ঝুঁকি প্রায় অর্ধেক বা দুই-তৃতীয়াংশ কমে যায়।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...